Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১৯ নভেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, রবিবার, ১৯ নভেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৯:০৯ অনলাইন ভার্সন
স্কুলছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে শিক্ষকের দণ্ড
নওগাঁ প্রতিনিধি:
স্কুলছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে শিক্ষকের দণ্ড

নওগাঁর মান্দা উপজেলার জোতবাজার বালিকা বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে প্রধান শিক্ষক আব্দুর রহমানকে আটক করেছে পুলিশ। ওই ছাত্রীর দায়েরকৃত অভিযোগের ভিত্তিতে রবিবার গভীর রাতে তাকে আটক করা হয়।

এরপর সোমবার দিনভর অনেক নাটকীয়তার পর সন্ধ্যা পৌনে ৬টায় ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে তাকে ১৫ দিনের সাজা প্রদান করে উপজেলা নির্বাহী অফিসার।
অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক আব্দুর রহমান উপজেলার করাতিপাড়া গ্রামের মৃত জসিম উদ্দিন দেওয়ানের ছেলে।

এদিকে ছাত্রী যৌন হয়রানীর ঘটনায় বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে এলাকাবাসি। ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে সোমবার দুপুরে জোতবাজার চৌরাস্তার মোড়ে শিক্ষার্থীসহ স্থানীয়রা মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে। এ সময় প্রধান শিক্ষক আব্দুর রহমানের অপসারণসহ শাস্তির দাবি জানানো হয়।
অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, প্রধান শিক্ষক আব্দুর রহমান বিদ্যালয় ছুটির পর ওই ছাত্রীকে প্রায়ই অফিস কক্ষে ডেকে নিয়ে বিভিন্ন ধরনের কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিল। রবিবার বিকেল ৪টার দিকে বিদ্যালয় ছুটির পর পানি খাবার কথা বলে ওই ছাত্রীকে আবারো নিজ কক্ষে ডেকে নেন তিনি। এ সময় অশ্লীল কথাবার্তাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে হাত দিয়ে তাকে যৌন নিপীড়ন করে। সুযোগ পেয়ে ওই ছাত্রী সেখান থেকে পালিয়ে বাড়ি গিয়ে ঘটনাটি তার বাবা মাকে অবহিত করে।

এ ঘটনায় রবিবার রাতে প্রধান শিক্ষক আব্দুর রহমানের বিরুদ্ধে মান্দা থানায় অভিযোগ দায়ের করে ওই ছাত্রী।
এ বিষয়ে মান্দা থানার ওসি আনিছুর রহমান জানান, ছাত্রীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে রাতেই প্রধান শিক্ষক আব্দুর রহমানকে আটক করা হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যায় ভ্রাম্যমান আদালত তাকে ১৫দিনের সাজা প্রদান করে।

ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইউএনও মো. নুরুজ্জামান বলেন, শিক্ষার্থীর জবানবন্দি ও সাক্ষীদের সাক্ষ্যের ভিত্তিতে এ রায় প্রদান করা হয়েছে।

বিডি প্রতিদিন/ সালাহ উদ্দীন

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow