Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৭:২৮ অনলাইন ভার্সন
আপডেট :
নীলফামারীতে গৃহবধূ খুন, স্বামী গ্রেফতার
নীলফামারী প্রতিনিধি:
নীলফামারীতে গৃহবধূ খুন, স্বামী গ্রেফতার

নীলফামারীর সৈয়দপুরে আশা সিংহানিয়া (৩০) নামের এক গৃহবধূকে হত্যা করা হয়েছে। মঙ্গলবার বেলা ২টার দিকে শহরের শহীদ তুলশীরাম সড়কের (দিনাজপুর রোড) বাসার শয়নকক্ষ থেকে তাঁর  লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে তাঁর স্বামী রাকেশ সিংহানিয়া বাবলীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি হত্যা মামলা হয়েছে।

নিহতের পারিবারিক ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বগুড়ার দুপঁচাচিয়া উপজেলার তালোড়া পৌর এলাকার স্বগীয় গোপাল প্রসাদ আগওয়ালার মেয়ে আশা সিংহানিয়া। সৈয়দপুর শহরে শহীদ তুলশীরাম সড়কের (দিনাজপুর রোড) বাসিন্দা মাড়োয়ারী সজন সিংহানিয়ার ছেলে রাকেশ সিংহানিয়া বাবলী’র সঙ্গে তাঁর বিয়ে হয় ২০০৪ সালে। ঘটনার দিন গতকাল (সোমবার) রাতে নিজ বাসায় তাঁর মৃত্যু ঘটে।  

মঙ্গলবার দুপুরে বিভিন্ন সূত্রে খবর পেয়ে সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তাজ উদ্দিন আহমেদের উপস্থিতিতে ওই বাসায় গিয়ে শোয়ার ঘরে বিছানার ওপর গৃহবধূর আশা সিংহানিয়ার নিথর দেহ পড়ে থাকা অবস্থায় দেখতে পায় পুলিশ। পরে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।  

সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করেন সৈয়দপুর থানার উপ-পরির্দশক (এসআই) মো. ইয়াছিন আলী। তিনি জানান, উদ্ধারকৃত মরদেহের নাভির ওপর জখমের চিহৃ রয়েছে। মুখ দিয়ে রক্ত ঝরছিল। গলায়ও হালকা আঘাতে চিহ্ন ছিল।  

পুলিশ জানায় এ ঘটনায় গৃহবধূর স্বামীকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে স্ত্রীকে গলা ও পেটে আঘাত করে হত্যা করার কথা স্বীকার করেছে। আর কি কারণে স্ত্রীকে হত্যা করেছে তা জানা যায়নি। তবে যৌতুকের জন্য এ হত্যাকান্ডের ঘটনাটি ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এ ঘটনায় নিহত গৃহবধূর ভাই দিলীপ প্রসাদ আগরওয়ালা বাদী হয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। পরে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নীলফামারী সদর আধুনিক হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়। নিহত গৃহবধূর স্বামী রাকেশ সিংহানিয়া বাবলী পেশায় একজন সার ব্যবসায়ী। বাসা সংলগ্ন তাঁর ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান। আশা সিংহানিয়া ও রাকেশ সিংহানিয়া বাবলী দম্পতির এক শিশু কন্যা রয়েছে। তাঁর নাম ভূমি সিংহানিয়া। সে সৈয়দপুর লায়ন্স স্কুল এন্ড কলেজে ষষ্ঠ শ্রেণীতে পড়ে।

এদিকে, খবর পেয়ে গৃহবধূর বড় ভাই সহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা বগুড়ার তালোড়া থেকে সৈয়দপুর ছুঁটে আসেন। এ সময় গৃহবধূ আশা সিংহানিয়ার লাশ দেখে স্বজনরা কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। সেখানে এক হৃদয়বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়।


বিডি প্রতিদিন/১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭/হিমেল

আপনার মন্তব্য

up-arrow