Bangladesh Pratidin

ফোকাস

  • ২ জুন থেকে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু
  • রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বন্য হাতির আক্রমণে ১০ মাসে নিহত ১৩
  • সাতক্ষীরায় যুবলীগ-শ্রমিকদের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ২
  • তাসফিয়া হত্যায় 'তৃতীয় পক্ষের' ইন্ধন নিয়ে সন্দেহ পরিবারের
  • বান্দরবানে পাহাড় ধসে নারীসহ ৫ শ্রমিক নিহত
  • সাভারে কাউন্সিলরের লোকজনের সাথে ছাত্রলীগের সংর্ঘষ-গুলি, আহত ২০
  • কেরালায় নিপা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৯ জনের মৃত্যু
  • নাজিব পরাজয় মেনে নিতে চাননি: আনোয়ার ইব্রাহিম
  • রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শনে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া
  • মাদকবিরোধী অভিযান; রাতে ৭ জেলায় 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত ৯
প্রকাশ : ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২০:০০ অনলাইন ভার্সন
মাদারীপুরে জায়গা দখল করে জোরপূর্বক ঘর নির্মাণের অভিযোগ
মাদারীপুর প্রতিনিধি
মাদারীপুরে জায়গা দখল করে জোরপূর্বক ঘর নির্মাণের অভিযোগ

আদালতের নির্দেশ অমান্য করে মঙ্গলবার জোরপূর্বক জায়গা দখল করে ঘর নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার পৌরসভার পূর্ব সরমঙ্গল এলাকার স্থানীয় বখাটেদের বিরুদ্ধে। আনসার-ভিডিপি’র সাবেক ইউপি কমান্ডার আব্দুল জলিল ঢালী এই অভিযোগ করেন। পরে রাজৈর থানা পুলিশ গিয়ে নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেয়।

ভূক্তভোগী আব্দুল জলিল ঢালী অভিযোগ করেন, রাজৈর উপজেলার সরমঙ্গল মৌজায় ১৯২ নং খতিয়ানে তার পিতার ৪০ শতাংশ জায়গা রয়েছে। সেখানে দীর্ঘদিন যাবৎ একটি পুকুর ও বাগান ছিল। সম্প্রতি পুকুরটি মাটি ভরাট করলে পার্শ্ববর্তী আহমাদ ঢালী, আব্দুল হক ঢালী ও মোহাম্মদ ঢালীর অংশীদাররা তার সম্পত্তি দখলের চেষ্টা করে। এতে তিনি বাদী হয়ে মাদারীপুর সহকারী জজ আদালতে একটি মামলা দায়ের করে। মামলাটি এখনো চলমান রয়েছে এবং সকল সম্পত্তি স্থিতিশীল রাখার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। কিন্তু মঙ্গলবার সকালে মোহাম্মদ ঢালীর ছেলে নুরজামাল ঢালীসহ কতিপয় বখাটেদের সহযোগিতায় মাটি ভরাট করে একটি টিনের ঘর নির্মাণ করে। এতে জলিল ঢালী বাধা দিয়ে তাদেরও শারীরিক লাঞ্চিত করে। পরে রাজৈর থানা পুলিশের সহযোগিতায় সাময়িক কাজ করা রাখা হয়।

এ ব্যাপারে রাজৈর থানার এসআই নাজমুল হাসান জানান, যেহেতু জায়গা নিয়ে আদালতে মামলা রয়েছে। সে কারনেই এখানে কেউ অশান্তি করলে আমরা তাকে আইনের আওতায় আনবো। নির্মাণ কাজ আপাতত বন্ধ রয়েছে।

তবে অভিযুক্ত নুরজালাম ঢালী দাবী করেন, এই জায়গাতে তাদের অংশ রয়েছে। কিন্তু আদালতে বিষয়টি তারা না জেনে করেছে।

বিডি-প্রতিদিন/১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭/মাহবুব

 

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow