Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শনিবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, শনিবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:০০ অনলাইন ভার্সন
আপডেট :
'শেখ হাসিনা উন্নয়নের প্রতীক, গণতন্ত্রের প্রতীক'
শরীয়তপুর প্রতিনিধি
'শেখ হাসিনা উন্নয়নের প্রতীক, গণতন্ত্রের প্রতীক'
একেএম এনামুল হক শামীম (ফাইল ছবি)

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম বলেছেন, "শেখ হাসিনা উন্নয়নের প্রতীক, গণতন্ত্রের প্রতীক। বঙ্গবন্ধু কন্যা ক্ষমতায় আছেন বলেই দেশের উন্নয়ন হচ্ছে।

তার হাত ধরেই স্বাধীনতা বিরোধীদের ষড়যন্ত্র চক্রান্ত মোকাবিলা করেই বিশ্বের বুকে উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত হয়েছে বাংলাদেশ। " শুক্রবার বিকালে সখিপুরের চরকুমারিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে বৃত্তি ও পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।  

এ সময় এনামুল হক শামীম বলেন, "পদ্মা সেতু নিয়ে কানাডার আদালতের মাধ্যমে প্রমাণিত হয়েছে ন্যায় নীতি ও সততার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করলে কোন ষড়যন্ত্রই সফল হয় না। ওয়ান ইলেভেনে আওয়ামী লীগকে ভাঙ্গার চেষ্ঠা করা হয়েছে। বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনাকে মাইনাস করার ষড়যন্ত্র করা হয়েছিল। কিন্তু শেখ হাসিনার প্রশ্নে আপষহীন দেশের কোটি কোটি মানুষের কারণে ষড়যন্ত্রকারীরা সফল হয়নি। এখানো সফল হয়নি। ষড়যন্ত্রকারীরা বার বার পরাজিত হয়। "
 
আওয়ামী লীগের এ সাংগঠনিক সম্পাদক আরও বলেন, "আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের এখন একটাই কাজ শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে হবে।

শেখ হাসিনার হাতকে শক্তি করার জন্য নিজেদের ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। তাহলেই আগামী নির্বাচনে টানা তৃতীয় বারের মতো প্রধানমন্ত্রী হয়ে শেখ হাসিনার সরকার হ্যাট্রিক করবে। আজকে শেখ হাসিনার হাতে ক্ষমতা আছে বলেই দেশের গণতন্ত্র ও স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব টিকে আছে। "
 
বিদ্যালয়ের সভাপতি ও সখিপুর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি হুমায়ুন কবির মোল্লার সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ সভাপতি ছাবেদুর রহমান খোকা সিকদার, সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে, জেলা ও স্থানীয় নেতা ও ইউপি চেয়ারম্যানদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, একেএম ইসমাইল হক, আলমগীর হোসেন মাঝি, আবদুর রাজ্জাক পিন্টু, এসএম মাহবুবুর রহমান, নাসির উদ্দিন পাইক, আবুল হাসেম দেওয়ান, মোজাম্মেল, আনোয়ার হোসেন বালা, কহিনুর আকতার দোলা, মানিক সরদার, জসিম মাতবর, ইউনুচ সরকার, ডা. শামসুজ্জোহা রতন প্রমুখ।    


বিডি-প্রতিদিন/ ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭/ হিমেল-আব্দুল্লাহ সিফাত-২২

আপনার মন্তব্য

up-arrow