Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ২৩ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, বুধবার, ২৩ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৮:৩৪ অনলাইন ভার্সন
আপডেট :
রৌমারীতে পানির দরে নিলামে বিক্রি ২২টি গরু
সাখাওয়াত হোসেন সাখা, রৌমারী (কুড়িগ্রাম):
রৌমারীতে পানির দরে নিলামে বিক্রি ২২টি গরু

কুড়িগ্রামের রৌমারী কাস্টম কর্মকর্তার আওতায় ২২ গরু মাত্র ৩ লাখ ২০ হাজার টাকায় নিলামে বিক্রির ঘটনা ঘটেছে। কাস্টমস কর্মকর্তা ও বিজিবি জোয়ানরা গরু ব্যবসায়িদের সঙ্গে আঁতাত পানির দরে ওই নিলামে গরু বিক্রির ঘটনার জন্ম দেয়।

যেখানে ২২টি গরুর নিলাম মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছিল ৬ লাখ ৬০ হাজার টাকা, সেখানে এত কমে কিভাবে নিলাম দেয়া হলো তা নিয়ে জনমনে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। আজ সোমবার দুপুরের পর ৩৫ ব্যাটালিয়নের বাঘারচর বিজিবি ক্যাম্পে ওই নিলাম কার্যক্রম সম্পন্ন করা হয়।

নিলামে বিক্রি করা ওই ২২ গরু ভারত থেকে অবৈধ ভাবে নামানোর সময় বাঘারচর বিজিবি ক্যাম্পের জোয়ানরা তা আটক করে। বৃহষ্পতিবার দিবাগত রাতে আন্তর্জাতিক মেইন সীমানা পিলার ১০৭৪ এর নিকট কাছে মাখনেচর সীমান্ত দিয়ে পার করার সময় বিজিবির হাতে ধরা পড়ে। এসময় চোরাচালানি চক্র গরু ফেলে পালিয়ে যায়। বিজিবি’র হাতে আটক গরুগুলো নিয়ম অনুসারে কাস্টমস অফিসে জমা দেয়ার কথা থাকলেও পরিবহনে সমস্যার কারণে ক্যাম্পে রেখেই কাস্টমস কর্মকর্তাকে ডেকে নিয়ে নিলাম কার্যক্রম সম্পন্ন করা হয়েছে বলে জানা গেছে।
নিলামে অংশ নেয়া কেরামত আলী, শামীম মিয়া জানান, ২২ জন গরু ব্যবসায়ি নিলাম কার্যক্রমে অংশ নিয়ে টাকা জমা দেয়। নিলামের এক পর্যায়ে একজন বাদে সকল অংশ গ্রহণকারিকে ভয়ভীতি দেখিয়ে ক্যাম্পের বাউন্ডারির বাইরে পাঠিয়ে দেয়া হয়। এরপর মিষ্টার আলী নামের ওই একজনের সঙ্গে গোপন আঁতাত করা হয়। ছোট বড় মিলে ২২টি গরুর আনুমানিক বাজার মূল্য হবে ১০ লাখ টাকারও বেশি। সেখানে মিষ্টার আলী নামের গরু ব্যবসায়ির কাছে ওই ২২ গরু নিলামে বিক্রি করা হলো মাত্র ৩ লাখ ২০ হাজার টাকা। আমাদের নিলামে ডাক দেয়ার সুযোগ দেয়া হয়নি।  

পানির দরে নিলামে বিক্রি প্রসঙ্গে জানতে চাইলে রৌমারী কাস্টমস কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান বলেন, ‘নিয়ম অনুসারেই নিলাম কার্যক্রম সম্পন্ন করা হয়েছে। এখানে কোনো অনিয়ম ও গোপন আঁতাত বলতে কিছু নেই। ’ 
নিলামে অংশ গ্রহণকারিদের বাইরে পাঠিয়ে দেয়া প্রসঙ্গে বাঘারচর বিজিবি ক্যাম্পের কোম্পানীূ কমান্ডার সুবেদার গোলাম মোর্শেদ বলেন, ‘অভিযোগ সত্য নয়। এখানে উম্মুক্ত নিলাম কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়েছে। কাউকে ভয়ভীতি দেখানো হয়নি। ’ 

বিডি প্রতিদিন/এ মজুমদার

 

আপনার মন্তব্য

up-arrow