Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৯:২৯ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৯:৩২
মার্তৃভাষা দিবসে কলাপাড়ায় শিশু-কিশোরদের ব্যতিক্রমী আয়োজন
উত্তম কুমার হাওলাদার, কলাপাড়া(পটুয়াখালী)
মার্তৃভাষা দিবসে কলাপাড়ায় শিশু-কিশোরদের ব্যতিক্রমী আয়োজন

আন্তর্জাতিক মার্তৃভাষা দিবস পালনে ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা জানানো পাশা্পাশি ব্যতিক্রমী এক আয়োজন করা হয় পটুয়াখালীর কলাপাড়ায়। মঙ্গলবার দুপুরে পৌরশহরের নাচনাপাড়া এলাকার শিশুরা অভিনয়ের মাধ্যমে ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের কিছু স্মৃতি তুলে ধরে।

তাদের এ আয়োজন দেখার জন্য স্থানীয় শত শত মানুষ ওই স্থানগুলোতে ভিড় জামায়। এছাড়া উপজেলার বিভিন্ন পাড়া মহল্লায় অস্থায়ী শহীদ বেদী তৈরি করে একুশের প্রথম প্রহরে ফুল দিয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়।

বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে দেখা গেছে, শিশু-কিশোরদের মাঝে বিশেষ আয়োজনে এ দিবসটি পালনের দৃশ্য। সোমবার সূর্যাস্তের পর কাঠ, বাশ, কলাগাছ, বাহারী রংয়ের কাগজ ও দড়ি দিয়ে সাজানো হয়েছে অস্থায়ী শহীদ মিনার। মঙ্গলবার দুপুরে পৌরশহরের নাচনাপাড়া এলাকায় একদল কিশোররা অভিনয় করে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময়ের যুদ্ধের স্মৃতি তুরে ধরে। এতে তারা সারা শরীরে কাঁদা গায়ে লাগিয়ে নিজেরা এক এক জন যুদ্ধরত মুক্তিযোদ্ধার দৃশ্য ফুটিয়ে তোলে।    

নাচনাপাড়া এলাকার একুশে ক্লাবের আহবায়ক কমিটির সদস্য মিলন সরকার জানান, একুশে ফেব্রুয়ারির চেতনা থেকে বেরিয়ে এসেছে স্বাধীনতা সংগ্রাামের প্রেরণা। এবার এ আয়োজনের মাধ্যমে নতুন প্রজন্মের কাছে ভাষা সংগ্রামের প্রকৃত ইতিহাস তুলে ধরার চেষ্টা করা হয়েছে।

বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সাংবাদিক হাবিবুল্লাহ রানা এ আয়োজন সম্পর্কে বলেন, আজকের শিশু-কিশোরদের কাছে প্রকৃত ইতিহাস তুলে ধরা আমাদের কর্তব্য।

তাদের এ আয়োজন নতুনদের মাঝে ভাষা শহীদদের প্রতি ও মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস জানতে অনুপ্রেরণা জোগাবে।


বিডি-প্রতিদিন/২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭/মাহবুব

আপনার মন্তব্য

up-arrow