Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, রবিবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২১:৩৫ অনলাইন ভার্সন
আপডেট :
স্মৃতির মিনারে শহীদদের স্মরণ করল ময়মনসিংহবাসী
ওয়ারেন্ট অব প্রিসিডেন্স লঙ্ঘনের অভিযোগ, জুতা পায়ে মিনারে মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার
ময়মনসিংহ প্রতিনিধি:
স্মৃতির মিনারে শহীদদের স্মরণ করল ময়মনসিংহবাসী

ভাষা শহিদদের স্মৃতির মিনারে একুশের প্রথম প্রহরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন ময়মনসিংহবাসী। প্রথম প্রহরে শহীদদের স্মরণে মানুষের ঢল নামে নগরীর টাউন হলের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে।

মঙ্গলবার একুশের প্রথম প্রহরে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন করেন প্রশাসনিক কর্মকর্তা, রাজনৈতিক দলসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতা-কর্মীরা।  

 
এদিকে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনে ওয়ারেন্ট অব প্রিসিডেন্স লঙ্ঘনের অভিযোগ তুলেছেন ময়মনসিংহ জেলা আইনজীবী সমিতি। আর ধোবাউড়ায় জুতা পায়ে শহীদ বেদিতে উঠে সমালোচিত হয়েছেন উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার ও ঘোষগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি রফিক উদ্দিন ভূঁইয়া।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানাায়, একুশের প্রথম প্রহরে ধোবাউড়া উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে শহীদ বেদিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে যান রফিক উদ্দিন। সেখানে তিনি জুতা পায়ে ফটোসেশনে অংশ নেন। ওই সময় মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডারের পাশে খালি পায়ে দাঁড়িয়ে ছিলেন ধোবাউড়া থানার ওসি শওকত আলম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন, উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান মোস্তফা কামাল হোসেন খান, উপজেলা চেয়ারম্যান মজনু মৃধাসহ অনেকেই।

বিষয়টি স্বীকার করে মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার রফিক উদ্দিন ভূঁইয়া বলেন, একুশের প্রথম প্রহরে আমি শহীদ মিনারে ফুল দেই। পরে ফিরে আসার সময় আমি ইউএনও সাহেবের কাছে বিদায় নিতে যাই। সে সময় সেখানে সবাই ছবি তুলছিলেন।

ছবি তুলতে গিয়ে কখন শহীদ বেদিতে উঠে গেছি, আমি নিজেও লক্ষ্য করিনি।

এদিকে, সোমবার দিবাগত রাত ১২ টা ১ মিনিটে ময়মনসিংহের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে প্রথমেই পুস্পস্তবক অর্পণ করেন বিভাগীয় কমিশনার জিএম সালেহ উদ্দিন। এর পরে শ্রদ্ধা জানান জেলা দায়রা জজ ড. আমির উদ্দিন ।  

আইনজীবীদের দাবি, জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদ এমপি ও ধর্মমন্ত্রী প্রিন্সিপাল মতিউর রহমান উপস্থিত না থাকায় ওয়ারেন্ট অব প্রিসিডেন্স অনুযায়ী সচিবদের সমমর্যাদা পাওয়া জেলা দায়রা জজ সবার আগে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ করার কথা। কিন্তু অতিরিক্ত সচিব পদমর্যাদার বিভাগীয় কমিশনার জিএম সালেহ উদ্দিন প্রথমেই মহান শহীদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

অপরদিকে, একুশের প্রথম প্রহরে এছাড়াও শ্রদ্ধা নিবেন করেন পুলিশের ময়মনসিংহ রেঞ্জের ডিআইজি চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন, ডিসি খলিলুর রহমান, এসপি সৈয়দ নুরুল ইসলাম, ময়মনসিংহ পৌরসভার মেয়র মো. ইকরামুল হক টিটু।

এরপর আওয়ামী লীগ এবং বিএনপিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা-কর্মী, সাংস্কৃতিক সংগঠন, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ সর্বস্তরের মানুষ শহীদ বেদিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন ভাষা শহীদদের। এছাড়াও মঙ্গলবার দিনব্যাপী নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে পালিত হয়েছে এ দিনটি।


বিডি প্রতিদিন/২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৭/হিমেল

আপনার মন্তব্য

up-arrow