Bangladesh Pratidin

ফোকাস

  • বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকতে পারে আরও ৩ দিন
  • বিচারবর্হিভূত হত্যার মাধ্যমে অপরাধ দমন সম্ভব নয়: বিএনপি
  • নাজিমের পরিবারকে কেন কোটি টাকা দেয়া হবে না : হাইকোর্ট
  • খালেদের অভ্যুত্থানের ডাক, যুবরাজ সালমানের নীরবতা নিয়ে বাড়ছে সন্দেহ!
  • ইকার্দিকে বাদ দিয়ে আর্জেন্টিনার চূড়ান্ত দল ঘোষণা
  • রাজীবের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার আদেশ স্থগিত, তদন্তের নির্দেশ
  • ৯ জেলায় 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত ১১
  • কক্ষপথে পৌঁছেছে বাংলাদেশের প্রথম স্যাটেলাইট বঙ্গবন্ধু-১
প্রকাশ : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৯:৩৬ অনলাইন ভার্সন
গৌরনদীতে স্কুলছাত্রীকে অপহরণ করে ধর্ষণ, একজনের যাবজ্জীবন
নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল:
গৌরনদীতে স্কুলছাত্রীকে অপহরণ করে ধর্ষণ, একজনের যাবজ্জীবন
প্রতীকী ছবি

বরিশালের গৌরনদীর পালরদী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী রাবেয়া আক্তার রীমা অপহরণ ও ধর্ষণ মামলায় অভিযুক্ত সাইদুল হক সরদারকে দন্ডবিধির দু'টি ধারায় যাবজ্জীবনসহ পৃথক দণ্ডাদেশ দেওয়া হয়েছে।

ধর্ষণের দায়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও তিন বছর এবং অপহরণের দায়ে ১৪ বছরের কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও দুই বছরের দণ্ডাদেশ দেওয়া হয়। বুধবার বিকেলে বরিশালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের বিচারক শেখ আবু তাহের আসামির অনুপস্থিতিতে এই রায় ঘোষণা করেন। আসামি সাইদুল গৌরনদীর উত্তর গেরাকুল এলাকার মৃত আব্দুর রহমান সরদারের ছেলে।

ট্রাইব্যুনাল সূত্র জানায়, ২০০৭ সালের ১৭ জুলাই সকালে স্কুলে যাওয়ার পথে জোরপূর্বক রীমাকে অপহরণ করে সাইদুল। এরপর বিভিন্ন স্থানে আটকে রেখে তাকে ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় ওই বছরের ২১ জুলাই রীমার চাচা শহিদুল ইসলাম বাদী হয়ে সাইদুলকে একমাত্র আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেন। একই বছরের ১৫ সেপ্টেম্বর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গৌরনদী থানার এসআই কাজী বিধান আবিদ একমাত্র সাইদুলকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন। ট্রাইব্যুনালে আট জনের সাক্ষ্য গ্রহন শেষে দুটি অভিযোগ প্রমানিত হওয়ায় বিচারক ওই রায় দেন।


বিডি-প্রতিদিন/এস আহমেদ

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow