Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০৮:৩৬ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০৯:০৭
শেরপুরে জমি নিয়ে বিরোধে যুবক খুন, পুলিশসহ আহত ১০
অনলাইন ডেস্ক
শেরপুরে জমি নিয়ে বিরোধে যুবক খুন, পুলিশসহ আহত ১০

শেরপুর সদর উপজেলার হালগড়া গ্রামে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় আব্দুস সাত্তার (৩০) নামে এক যুবক খুন হয়েছেন। এ ঘটনায় এক পুলিশ কনস্টেবলসহ ১০ জন আহত হয়েছেন।

শুক্রবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে।  

এদিকে এ ঘটনায় পুরো হালগড়া গ্রামে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, হালগড়া গ্রামে জমি নিয়ে মজু মিয়া ও তার ভাই কাদেরের সঙ্গে একই এলাকার রফিক মিয়া ও অবসরপ্রাপ্ত সেনাসদস্য রহিজ উদ্দিনের দ্বন্দ্ব চলছিল। গত ২৩ ফেব্রুয়ারি জমি নিয়ে উভয়পক্ষের মধ্যে সংর্ঘষে ১০ জন আহত হন। গুরুতর আহত কাদেরের ভাই আব্দুস সাত্তার শুক্রবার বিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যান।  

এদিকে তার মৃত্যুর খবর গ্রামে পৌঁছলে এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এসময় রহিজ উদ্দিন-রফিকের বাড়িতে আগুন দেয় প্রতিপক্ষরা। এতে ২০/২৫টি ঘর আগুনে পুড়ে যায়। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর দাবি, পুলিশের উপস্থিতিতে বাড়িতে আগুন দেওয়া হয়েছে।

অন্যদিকে শেরপুর সদর থানার ভাপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নজরুল ইসলাম অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে রহিজউদ্দিনের লোকজন নিজেদের বাড়িতে আগুন লাগিয়েছে। এতে ২০/২৫টি ঘর পুড়ে গেছে।  

তিনি আরও বলেন, আগুন দেওয়ার সময় এক নারীকে পুলিশ ধরে ফেললে পুলিশের ওপর হামলা করে তাকে ছাড়িয়ে নেয় রহিজ উদ্দিনের লোকজন। এ ঘটনায় সাইফুল ইসলাম নামে এক পুলিশ কনস্টেবল আহত হয়েছেন।  


বিডি প্রতিদিন/২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৭/হিমেল

আপনার মন্তব্য

up-arrow