Bangladesh Pratidin

ঢাকা, শুক্রবার, ২৪ নভেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, শুক্রবার, ২৪ নভেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৬:৫৪ অনলাইন ভার্সন
চুয়াডাঙ্গায় ওষুধ ব্যবসায়ীর ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা
জামান আখতার, চুয়াডাঙ্গা:
চুয়াডাঙ্গায় ওষুধ ব্যবসায়ীর ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা

মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ রাখার অপরাধে চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার চন্ডিপুর গ্রামের ন্যাশনাল ফার্মেসির মালিকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। আজ বেলা ১১টায় চন্ডিপুরে ফারুক হোসেনের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হয়।

আদালতের বিচারক দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রফিকুল হাসান এ দণ্ড দেন। দন্ডিত ফারুক হোসেন জরিমানার টাকা পরিশোধ করেন।

দামুড়হুদার কার্পাসডাঙ্গা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এস আই সুব্রত বিশ্বাস জানান, চন্ডিপুর গ্রামের কেরামত আলীর ছেলে ফারুক হোসেনের ন্যাশনাল ফার্মেসিতে বিপুল পরিমাণ মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ আছে বলে অভিযোগ পেয়ে এস আই সুব্রত বিশ্বাসের নেতৃত্বে একদল পুলিশ রবিবার রাতে ওই ওষুধের দোকানে অভিযান চালায়। দোকান থেকে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ আলাদা করে জব্দ করা হয় এবং দোকান মালিক ফারুক হোসেনকে আটক করা হয়। বিষয়টি জানানো হয় দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে। সোমবার সকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রফিকুল হাসান ওই ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে এলাকার লোকজন ও সাক্ষীদের সাথে কথা বলেন। দন্ডিত ফারুক হোসেন নিজেও স্বীকার করেন তিনি মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ বিক্রি করেন। সাক্ষ্যপ্রমাণ গ্রহণ শেষে ফারুক হোসেনকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে তিন মাসের কারাদন্ডের আদেশ দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। ফারুক হোসেন দন্ডের টাকা পরিশোধ করে মুক্তি পান।

 
পৃথক এক অভিযানে দামুড়হুদা থানা পুলিশ দামুড়হুদার মজারপোতা গ্রাম থেকে সোমবার সকালে গাঁজা সেবন অবস্থায় মজারপোতা গ্রামের মৃত হারেজ মন্ডলের ছেলে সাদেক আলীকে (৫০) আটক করে। তাকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করা হলে বিচারক দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রফিকুল হাসান সাদেক আলীকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন। সাদেক আলী জরিমানার টাকা পরিশোধ করে মুক্তি পান।  

বিডি প্রতিদিন/এ মজুমদার

 

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow