Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : ২ মার্চ, ২০১৭ ১৫:১১ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ২ মার্চ, ২০১৭ ১৫:৪৬
এক সময়ের খরস্রোতা পুনর্ভবা নদী এখন খেলার মাঠ
দিনাজপুর প্রতিনিধি:
এক সময়ের খরস্রোতা পুনর্ভবা নদী এখন খেলার মাঠ

এক সময়ের খরস্রোতা পুর্নভবা নদী এখন খেলার মাঠ। দিনাজপুর শহরের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া পুনর্ভবা নদী এখন পানি শূন্য ধুধু বালুচরই নয় এটা পরিনত হয়েছে খেলার মাঠে।

নদী তীরবর্তী গ্রামগুলোর একমাত্র খেলার মাঠ হয়েছে এ পুনর্ভবা নদীর বুক।

স্থানীয়রা জানায়, নদীতে বর্ষা মৌসুমে স্রোত থাকলেও বছরের বেশির ভাগ সময় শুকনো পানিশূন্য থাকে। ফলে নদীতে খেলার মাঠ তৈরি করে শিশুরা ক্রিকেট, ফুটবল, কাবাডি, গাদল, বৈচিসহ নানান খেলা করে।  

স্থানীয় যুবক মোঃ জাকির হোসেন জানান, দিন দিন ফাঁকা মাঠগুলো বাড়ি ঘর গড়ে উঠেছে। শিশু-কিশোররা খেলার মাঠ না পেয়ে নদীতে খেলা করে। মাঝে মধ্যে গ্রামের তরুণেরা ক্রিকেট, ফুটবলের টুর্নামেন্টেরও আয়োজন করে এ নদীর চরে। আর কাঞ্চন সড়ক সেতু থেকে শত শত দর্শক অবলোকন করে নদীর বুকে এই মাঠের খেলা।

বর্ষায় পানি থাকলেও নভেম্বরের-মার্চ পর্যন্ত নদীর বুক হয়ে ওঠে বিস্তৃর্ণ মাঠ। সেই মাঠে শিশু-কিশোর যুবকেরা খেলে ক্রিকেট। প্রতিদিন বিকেলে এমন চার পাচটি দলের ক্রিকেট খেলা চলে।  

শহরের ইকবাল হাই স্কুলের ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থী নদী তীরবর্তী পশ্চিম বলিুয়াডাঙ্গার মোঃ মাহিন হোসেন জানান, "আমাদের খেলার কোন মাঠ না থাকায় নদীর বুকে বালু চরে ক্রিকেট খেলি"। পাড়ায় কোন মাঠ না থাকায় তারা ফাঁকা মাঠ হিসেবে পুনর্ভবা নদীতে খেলেন বলে জানায় আরেক কিশোর আরফিুল ইসলাম।

দীর্ঘদিন খনন ও সংস্কার না করায় নদীর নাব্যতা হারিয়েছে। এতে বর্ষার পানি হলেই নদীর দু’পাড়ের জমি ভেঙ্গে নদীতে পতিত হয়। ফলে এর দু’পাড়ে শত শত একর জমি অনাবাদি হয়ে পড়ে। তবে নদীর অনেক স্থানে কেউ কেউ ভুট্টাসহ বিভিন্ন প্রকার ফসল চাষ করছে।


বিডি প্রতিদিন/২ মার্চ ২০১৭/হিমেল

আপনার মন্তব্য

up-arrow