Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : ৪ মার্চ, ২০১৭ ২০:২০ অনলাইন ভার্সন
আপডেট :
তিন নেতাকে বহিস্কারে বিক্ষোভ
বানারিপাড়ায় বিএনপি'র সহ-সভাপতি সান্টুকে অবাঞ্চিত ঘোষণা
নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল:
বানারিপাড়ায় বিএনপি'র সহ-সভাপতি সান্টুকে অবাঞ্চিত ঘোষণা

বরিশালের বানারীপাড়া পৌর বিএনপির সভাপতি গোলাম মাহমুদ মাহাবুব মাস্টারসহ তিন বিএনপি নেতার বহিষ্কারাদেশ অবৈধ দাবি করে বিক্ষোভ হয়েছে। বিক্ষোভ শেষে এক সমাবেশে জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি এস সরফুদ্দীন আহমেদ সান্টুকে বানারীপাড়ায় অবাঞ্চিত ঘোষণা করা হয়।

শনিবার উপজেলা বিএনপির কার্যালয় থেকে সদ্য বহিষ্কৃত পৌর বিএনপির সভাপতি মাহাবুব মাস্টারের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। মিছিলটি বন্দর বাজারের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে তে-মাথায় গিয়ে শেষ হয়। সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বহিষ্কৃত মাহবুবসহ বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতারা বক্তব্য রাখেন। বক্তারা সরফুদ্দীন সান্টুকে বানারীপাড়ায় অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেন। একই সাথে তাদের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের দাবি জানান তারা।

গত ১ মার্চ প্রকাশ্য সমাবেশ করে বানারীপাড়া উপজেলা পরিষদের উপ-নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে দলীয় প্রার্থী শাহে আলম মিয়ার বিরুদ্ধে অবস্থান নেয় বিএনপি’র একটি পক্ষ। ওই সভায় সভাপতিত্ব করেন পৌর বিএনপির সভাপতি মাহাবুব মাস্টার।

বক্তারা বলেন, সরফুদ্দীন আহমেদ সান্টু নির্বাচনের সময় এলাকায় না থেকে বিদেশ রয়েছেন। এখানে যাকে প্রার্থী করা হয়েছে তিনি নিজেকে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর কাছে বিক্রি করে দিয়েছেন।

আমরা বিক্রির দলে নেই। বক্তারা বানারীপাড়া বিএনপি ভাঙার জন্য, নির্বাচনী কর্মকান্ডে নেতাকর্মীদের না ডাকা, কোন নির্বাচনী প্রচারণা না করা, আওয়ামী লীগের সাথে আঁতাত করে নৌকাকে বিজয়ী করার প্রক্রিয়া করার অভিযোগে এস. সরফুদ্দিন আহম্মেদ সান্টু এবং আওয়ামী লীগ থেকে আসা শাহে আলমকে দায়ী করে উপজেলা উপ-নির্বাচনের সকল কর্মকান্ড বর্জনের ঘোষণা করেন।

এ ধরনের বক্তব্য দেয়ার প্রেক্ষিতে গত ৩ মার্চ রাতে জেলা বিএনপির সভাপতি এবায়েদুল হক চাঁন ও সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম শাহিন বানারীপাড়া পৌর বিএনপির সভাপতি গোলাম মাহবুব মাহমুদ মাস্টার, উদয়কাঠী ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি হাচান বালী ও পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি খলিলুর রহমান চোকদারকে দল থেকে সাময়িক বহিষ্কার করেন।


বিডি-প্রতিদিন/এস আহমেদ

আপনার মন্তব্য

up-arrow