Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ২৩ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, বুধবার, ২৩ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : ১৩ মার্চ, ২০১৭ ১৯:০৪ অনলাইন ভার্সন
আপডেট :
প্রকৃত হিজড়ারা পাচ্ছে না আত্মকর্মসংস্থানের প্রশিক্ষণ
শেখ রুহুল আমিন, ঝিনাইদহ:
প্রকৃত হিজড়ারা পাচ্ছে না আত্মকর্মসংস্থানের প্রশিক্ষণ

ঝিনাইদহে প্রকৃত হিজড়ারা পাচ্ছে না আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টির জন্য প্রশিক্ষণ। অভিযোগ উঠেছে সমাজ সেবা দপ্তরের কতিপয় দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তারা যোগসাজস করে নকল হিজরা সাজিয়ে যেনতেন প্রশিক্ষণ দিয়ে টাকা আত্মসাতের পায়তারা চালাচ্ছেন।

ঘটনাটি নিয়ে প্রকৃত হিজরাদের মধ্যে অসন্তোস ও উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ নিয়ে গত ১২মার্চ ঝিনাইদহ শহরের কাঞ্চননগরে হিজড়া নাজমার বাসায় ২৭ জন হিজড়া এক প্রতিবাদ সমাবেশ করে। সেখানে তারা ক্ষোভে ফেটে পড়েন। ঘটনা জানাজানি হয়ে গেলে জেলা সমাজ সেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আবদুল মতিন অফিস ফেলে পালিয়ে বেড়াচ্ছে বলে জানা গেছে। বিষয়টি ভুক্তভোগীরা তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন।

হিজড়াদের অভিযোগে জানা গেছে, প্রতি বছরের ন্যায় এবারও ঝিনাইদহের হিজড়াদের জীবন মান উন্নয়নের জন্য ২০১৬/১৭ অর্থবছরের বিভিন্ন প্রকার ট্রেনিং বাবদ ১৭ লাখ টাকা আসে। কিন্তু যারা প্রকৃত হিজড়া নয় তারা জেলা সিভিল সার্জন অফিস থেকে ৫ শত টাকার বিনিময়ে সার্টিফিকেট এনে ৫০জন ট্রেনিং করছেন। এদের মধ্যে অধিকাংশই ভুয়া। ঝিনাইদহ শহরের আদর্শপাড়ার মিলন তার দুই মেয়ে, ব্যাপারীপাড়ার আক্তার বিবাহিত, বয়ড়াতলার খঞ্জন তার দুই মেয়ে এক ছেলে, বড় মেয়েটারও বিয়ে হয়েছে, ষাটবাড়িয়ার যাদব তার দুই মেয়ে এক ছেলে আছে, খাজুরার হাসেম তার এক মেয়ে থাকা সত্ত্বেও তারা এই সুবিধা ভোগ করছেন।

এ ব্যাপারে ঝিনাইদহ সিভিল সার্জন রাশেদা সুলতানার সাথে কথা বললে তিনি বলেন, আমি এখানে নতুন এসেছি, এ বিষয়ে আমি কিছুই যানি না।  

ঝিনাইদহ জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আবদুল মতিনের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, যারা সিভিল সার্জন অফিস থেকে হিজড়ার সাটির্ফিকেট এনেছেন তাদেরকে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করেছি। এখানো কোন দুর্নীতি করা হচ্ছে না।

বিডি প্রতিদিন/এ মজুমদার

 

আপনার মন্তব্য

up-arrow