Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ আগস্ট, ২০১৭

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ আগস্ট, ২০১৭
প্রকাশ : ১৪ মার্চ, ২০১৭ ২১:৫৪ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৪ মার্চ, ২০১৭ ২৩:৩১
'শেখ হাসিনার নেতৃত্ত্বে সর্বোন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হবে বাংলাদেশ'
এম এ শাহীন, সিদ্ধিরগঞ্জ:
'শেখ হাসিনার নেতৃত্ত্বে সর্বোন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হবে বাংলাদেশ'
ফাইল ছবি

শেখ হাসিনার নেতৃত্ত্বে বাংলাদেশ পৃথিবীর সর্বোন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হবে বলে মন্তব্য করেছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমান। মঙ্গলবার সিদ্ধিরগঞ্জে সানারপাড় রওশন আরা কলেজের একাডেমিক ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন শেষে এক সমাবেশে তিনি এ মন্তব্য করেন।

এসময় তিনি বলেন, তোলারাম কলেজের ফাষ্ট ইয়ারের ছাত্র থাকার সময় সরকারিকরণের দাবিতে জিয়াউর রহমানের গাড়ি আটকিয়েছিলাম। একটা কলেজকে সরকারিকরণ করার জন্য রাষ্ট্রপতির কাছে আবেদন করেছিলাম। কিন্তু আমাদেরকে তখন মেলেটারীরা মেরে পিঠ ফাটিয়ে দিয়েছিল। কিন্তু আমরা ব্যাথা পাই নাই। কেননা এ বয়সে কেউ ব্যাথা পায়না। এ বয়সটা হচ্ছে যুদ্ধে যাওয়ার বয়স। মানুষ বলে- এখন যৌবন যার, যুদ্ধে যাওয়ার শ্রেষ্ঠ সময় তার। এখন যৌবন যার, মিছিল যাওয়ার শ্রেষ্ঠ সময় তার। পৃথিবীকে বলতে হবে- পৃথিবী সাবধান। বাংলাদেশের ইয়ং জেনারেশন ঘুম থেকে উঠেছে। আমরা আসছি, আমরা পৃথিবীর সর্বোন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হব শেখ হাসিনার নেতৃত্ত্বে।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্দেশে শামীম ওসমান বলেন, জীবনটা এখন যা দেখছো-এমন নয়। সংঘর্ষ আছে সামনে। এবং তোমাকে জিততে হবে।  

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় শ্রমিকলীগের সাবেক সভাপতি আব্দুল মতিন মাষ্টার, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইয়াছিন মিয়া,  থানা যুবলীগর আহ্বায়ক ও নাসিক কাউন্সিলর মতিউর রহমান মতি, নাসিক ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাজী ওমর ফারুক, ২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইকবাল হোসেন, ৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শাহজালাল বাদল, ৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আরিফুল হক হাসান, সানারপাড় আনন্দলোক স্কুলের গভর্নিং বডির সভাপতি আব্দুর রহিম মেম্বার, যুবলীগ নেতা তোফায়েল হোসেন, রওশন আরা কলেজের অধ্যক্ষ হারুণ-অর-রশিদ ও মিজমিজি পশ্চিমপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাইদুর রহমান।  

উপস্থিত ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্দেশ্য করে শামীম ওসমান বলেন, মা-বাবাকে কষ্ট দিওনা। ইসলামে আছে কোন সন্তান যদি তার মায়ের চেহারার দিকে মহব্বতের সাথে তাকিয়ে থাকে, তাহলে আল্লাহ তায়ালা তাকে একটি কবুলে হজ্বের সোয়াব দেন। তোমরা মজা কর, হ্যাপী থাক। কিন্তু মা-বাবার দোয়া ও মুরব্বীদের দোয়া মাথার উপর রেখ। তবে দেখবা সামনের কোন চ্যালেঞ্জ তোমাদের আটকাতে পারবে না।  

 

বিডি প্রতিদিন/১৪ মার্চ ২০১৭/হিমেল

আপনার মন্তব্য

up-arrow