Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ২২ নভেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, বুধবার, ২২ নভেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : ১৬ মার্চ, ২০১৭ ১৬:২৫ অনলাইন ভার্সন
বরিশালে ৫ জয়িতা নির্বাচিত
রাহাত খান, বরিশাল:
বরিশালে ৫ জয়িতা নির্বাচিত

বরিশাল বিভাগের ছয় জেলার ১০ জন সংগ্রামী নারীর মধ্য থেকে ৫ জনকে জয়িতা নির্বাচিত করা হয়েছে। আজ বৃহষ্পতিবার সকালে নগরীর অশ্বিনী কুমার হলে বিভাগীয় পর্যায়ের ওই আয়োজন করে বরিশাল মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর।

 

নির্বাচিত জয়িতারা হলো সমাজ উন্নয়নে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ বরিশাল সিটি করপোরেশনের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর নারী নেত্রী হনুফা বেগম, জীবন সংগ্রামে অর্থনৈতিকভাবে সাফল্য অর্জনকারী বরিশাল সিটি করপোরেশনের গোড়াচাঁদ দাস সড়ক বটতলা এলাকার বাসিন্দা বিলকিস আহম্মেদ, শিক্ষা ও চাকুরীর ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জনকারী নারী হিসেবে বরগুনা জেলার পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা মাহমুদা খাতুন, সফল জননী ক্যাটাগরীতে পিরোজপুর জেলার ভান্ডারিয়া উপজেলার আতরখালী গ্রামের মোসাম্মৎ লুৎফুন্নেছা বেগম এবং নির্যাতনের বিভিষিকা মুছে ফেলে নতুন উদ্যমে জীবন শুরু করা বিবি তাজেরা বেগম।

বরিশালের বিভাগীয় কমিশনার মো. গাউসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ‘জয়িতা অন্বেষণ’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সদর আসনের এমপি জেবুন্নেছা আফরোজ। বিশেষ অতিথি ছিলেন নারী সংগঠক অধ্যাপক শাহ্ সাজেদা, রহিমা সুলতানা কাজল, জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের কর্মকর্তা রাশিদা বেগম, ইউনিসেফ বরিশাল বিভাগের প্রধান এএইচ তৌফিক আহমেদ, সমাজসেবা অধিদপ্তরের সহকারি পরিচালক এএমএম আক্তারুজ্জামান তালুকদার, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর বরিশালের সহকারি পরিচালক মুহা. শোয়ৈব ফারুক।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, আজকের জয়িতারা একেক জন বাংলাদেশ। তাঁরা তাঁদের জীবন সংগ্রাম দিয়ে নিজেরা যেমন বাঁধা অতিক্রম করেছেন। তেমনি অন্য নারীদের সমাজে টিকে থাকার উদ্যম ও সাহস যুগিয়েছেন। এই জয়িতারাই বাংলাদেশকে এগিয়ে নেবে। আজকের জয়িতারাই একদিন বাংলাদেশের নেতৃত্ব দেবে। আমাদের দেশে এ রকম হাজারও জয়িতা রয়েছে।

যাঁদের সংগ্রাম আর ত্যাগে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। এরাই পিছিয়ে পরা নারীদের পথ দেখাবে।

বরিশালের জয়িতাদের জীবন সংগ্রামের বাস্তব অভিজ্ঞতার কথা বর্ণনার মধ্য দিয়ে শুরু হয় অনুষ্ঠান। বিভাগীয় পর্যায়ের ১০ জন বিজয়ী তাঁদের জীবন সংগ্রামের কাহিনী তুলে ধরেন। সেখান থেকে ৫ জনকে জয়িতা হিসেবে নির্বাচিত করা হয়।

সফল জননী মোসাম্মৎ লুৎফুন্নেছা বেগম পিরোজপুর জেলার ভান্ডারিয়া উপজেলার গ্রামের একজন সাধারণ গৃহিনী ও রত্নগর্ভা মা। স্বামীর সংসারে নানা প্রতিকূলতার সঙ্গে লড়াই করেছেন তিনি। স্বামীর সামান্য আয়ে ৭ সন্তানকে লেখাপড়া করাতে গিয়ে নিজে হাস-মুরগীর খামার এবং শাক-সবজির চাষ করে ছেলে-মেয়েদের লেখাপড়ার অর্থের যোগান দিতেন। বর্তমানে দুই ছেলে উচ্চতর ডিগ্রি শেষ করে লন্ডনে আছেন। এক ছেলে উচ্চতর ডিগ্রি শেষ করে প্রশাসন ক্যাডারে কর্মরত। এক ছেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকোত্তর শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী। দুই কন্যার বিয়ে হয়েছে। অন্য কন্যা সন্তান স্নাতকোত্তর শেষ করে শিক্ষকতা করছেন। অন্য তিনজন জয়িতারও রয়েছে সংগ্রামী ইতিহাস।

প্রাথমিক পর্যায়ে বরিশাল বিভাগের বিভিন্ন উপজেলার ৯০০ জন সংগ্রামী নারী জয়িতা অন্বেষণ প্রতিযোগিতায় অংশ নেন। সেখান থেকে জেলা পর্যায়ের নির্বাচন শেষে ১০ জনকে নিয়ে অনুষ্ঠিত হয় বিভাগীয় বাছাই অনুষ্ঠান।

বিডি প্রতিদিন/এ মজুমদার

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow