Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : ১৬ মার্চ, ২০১৭ ১৭:০৯ অনলাইন ভার্সন
পুলিশের বিরুদ্ধে প্রতিবন্ধী মেকারের মোবাইল আত্মসাতের অভিযোগ
চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি:
পুলিশের বিরুদ্ধে প্রতিবন্ধী মেকারের মোবাইল আত্মসাতের অভিযোগ

মেকারের কাছ থেকে নিয়ে যাওয়া ২৯টি মোবাইল ও দেড়লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ থানার এএসআই মাহবুবের বিরুদ্ধে। এদিকে মামলা না দেয়ার কথা বলে ওসির নামে দু’লাখ টাকা চেয়ে না পাওয়ায় মাত্র ১০টি মোবাইল থানায় জমা দিয়ে ওই মেকারের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন তিনি।

ঘটনাটি ঘটেছে শিবগঞ্জ উপজেলার বিনোদপুর চাঁদশিকারী গ্রামে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে বিনোদপুরে সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেছেন বিনোদপুর খাসেরহাটের শারীরিক প্রতিবন্ধী মোবাইল মেকার মিষ্টার আলী।

লিখিত অভিযোগে তিনি বলেন, বিনোদপুর বাজারে সরকারি মাটিতে দোকান ঘর করে তিনি মোবাইল সার্ভিসিংয়ের কাজ করছিলেন। এমন অবস্থায় গত ফেব্রুয়ারিতে অবৈধ দখলদার উচ্ছেদ অভিযানে তার দোকানটি ভেঙে ফেলা হয়। এ অবস্থায় তিনি দোকানের মালপত্র তার চাঁদশিকারী গ্রামের বাড়িতে রেখেছিলেন। কিন্তু গত ১৪মার্চ মঙ্গলবার বেলা একটার দিকে শিবগঞ্জ থানার এএসআই মাহবুব কয়েকজন পুলিশকে সাথে নিয়ে তার বাড়িতে অভিযান চালায় এবং বাড়িতে থাকা অন্যের সার্ভিসিং করতে দেয়া ৩৯টি পুরাতন মোবাইল সেট ও কিছু কেসিংসহ তার বাড়ির ট্রাংকে রাখা দেড়লাখ টাকা নিয়ে যান।

এসময় মিষ্টার আলীর মা পুলিশের কাছে এর কারণ জানতে চাইলে এএসআই মাহবুব তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন। এঘটনায় মোবাইল মেকার মিষ্টার আলী শিবগঞ্জ থানার ওসিকে জানালে ওসি পরেরদিন এসে তার মোবাইল ও টাকা নিয়ে যেতে বলেন। কিন্তু এরই মধ্যে এএসআই মাহবুব মিষ্টার আলীকে জানান, ওসিকে দুই লাখ টাকা না দেয়া হলে তার নামে মামলা দিয়ে হয়রাণি করা হবে।

শেষ পর্যন্ত টাকা দিতে না পারায় থানায় মাত্র ১০টি মোবাইল জব্দ দেখিয়ে তার বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন এবং বাকি ২৯টি মোবাইল ফোন ও দেড়লাখ টাকা আত্মসাত করেন এএসআই মাহবুব। সংবাদ সম্মেলতে মিস্টার আলীর মা-বাবা ও এলাকার লোকজন উপস্থিত ছিলেন।

এ ব্যাপারে এএসআই মাহবুবের সাথে যোগাযোগ করা হলে বিষয়টি সঠিক নয় দাবি করে সংবাদটি না করার অনুরোধ জানান। একইসঙ্গে এ প্রতিনিধির অফিসে এসে বিষয়টা নিয়ে আলোচনা করবেন বলে জানান।


বিডি-প্রতিদিন/এস আহমেদ

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow