Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০১৮

প্রকাশ : ১৮ মার্চ, ২০১৭ ১৩:০৫ অনলাইন ভার্সন
চেয়ারম্যানের নির্দেশে আদিবাসীর জমি দখল চেষ্টার অভিযোগ
ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি:
চেয়ারম্যানের নির্দেশে আদিবাসীর জমি দখল চেষ্টার অভিযোগ

ঠাকুরগাঁওয়ে জগন্নাথপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলাল মাষ্টারের নির্দেশে আদিবাসীর জমি দখলের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। উপায় না পেয়ে ওই আদিবাসী পরিবারের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও নির্বাহী অফিসারসহ বেশ কয়েকটি দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করেছেন। 

লিখিত অভিযোগে ও ভুক্তভুগিদের কাছ থেকে জানা যায়, অনেকদিন ধরে সদর উপজেলার জগন্নাথপুর ইউনিয়নের দৌলতপুর গ্রামের আন্ধারু কিসকু মার্টিনা হাজদা, ফুলমনি,সামু হাজদা, কদম হাজদা, মেরি হাজদারসহ কয়েকজনের বসবাসরত ও আবাদি ৫৪ শতক জমি দখলের চেষ্টা চালিয়ে আসছে একই গ্রামের হারুন রশিদের ছেলে রায়হান, আব্দুল বাসার, মোতালেব ও কাউসার। এদের পিছনে নেতৃত্ব দিচ্ছেন জগন্নাথপুর ইউপি চেয়ারম্যান আলাল মাষ্টার। কারণ জমি দখলদাররা সবাই চেয়ারম্যানের আত্মীয়। এরই মধ্যে ওই জমি সংক্রান্ত আদালতে একটি মামলা রায়ের করা হয় আদিবাসীর পক্ষ থেকে। 

মামলার পর আসামি রায়হান ও আব্দুল বাসার ক্ষিপ্ত হয়ে আদিবাসিদের উপড় চাড়াও হয়ে প্রাণ নাশের হুমকি দিলে আদিবাসীদের পক্ষ থেকে মার্টিনা হাজদা ঠাকুরগাঁও সদর থানায় আরো একটি সাধারণ ডাইয়েরি করেন। এ বিষয়ে মার্টিনা হাজদা জানান, আমরা আতঙ্কে দিন পার করছি। চেয়ারম্যানের লোকজন আমাদেরকে সবসময় হুমকি দিচ্ছে। আমরা প্রকৃত বিচার চেয়ে প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করেছি। 

আর এ বিষয়ে জগন্নাথপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলাল মাষ্টার জানান, মার্টিনা হাজদা যে অভিযোগ করেছেন তারা আমার আত্মীয় এটা সত্য। তবে আমি তাদেরকে কোনভাবেই নেতৃত্ব দেইনি। আমি শুধু এতটুকু বলেছি যে বসে বিষয়টি মিমাংসা করতে। 

ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি মশিউর রহমান জানান, থানায় সাধারণ ডায়েরি হয়েছে, আদিবাসীদের বিষয়টি আমাদের নজরে আছে। 

 

বিডি প্রতিদিন/১৮ মার্চ ২০১৭/হিমেল

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow