Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৬ এপ্রিল, ২০১৮ ২৩:৪৫ অনলাইন ভার্সন
বগুড়ায় স্ত্রীকে ন্যাড়া করল স্বামী
নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া:
বগুড়ায় স্ত্রীকে ন্যাড়া করল স্বামী

বগুড়ার ধুনটে পরিবারিক কলহের জের ধরে এক গৃহবধূ মাথার চুল কেটে দিয়েছে স্বামী বকুল হোসেন (৩৫)। এমনকি ন্যাড়া করার পর এক সপ্তাহ ধরে তাকে ঘরে বন্দি করেও রেখেছিল। নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধূর নাম আসমা খাতুন (২৬)।

খবর পেয়ে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে সোমবার বিকালে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে। 

জানা যায়, বগুড়ার ধুনট ভান্ডারবাড়ী ইউনিয়নের মাধবডাঙ্গা গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে বকুল হোসেনের (৩৫) সাথে ধুনট সদরপাড়া এলাকার ইসমাইল হোসেনের মেয়ে আসমা খাতুনের প্রায় ৮ বছর আগে বিয়ে হয়। তাদের দাম্পত্য জীবনে লিখন আকন্দ ও লিমন আকন্দ নামের দুই ছেলে সন্তানের জন্ম হয়। তাদের সংসারে পারিবারিক বিষয় নিয়ে মাঝেমধ্যেই ঝগড়া লেগে থাকতো। এর এক পর্যায়ে গত ৯ এপ্রিল বকুল হোসেন তুচ্ছু বিষয় নিয়ে গৃহবধূ আসমা খাতুনকে মারপিট করে তার স্ত্রীর মাথার চুল কেটে ন্যাড়া করে দেয়। এরপর গত সাতদিন যাবত ওই গৃহবধূকে ঘরে আটকে রাখে। লোকমুখে খবর পেয়ে সোমবার গৃহবধূর বাবা ইসমাইল হোসেন স্থানীয়দের সহযোগিতায় মেয়েকে ঘরবন্দী অবস্থা থেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করায়।
 
গৃহবধূ আসমা খাতুন জানান, কারণে-অকারণে দীর্ঘদিন ধরে স্বামী বকুল হোসেন তাকে নির্যাতন করে আসছে। গত এক সপ্তাহ আগে নির্যাতনের পর জোড়পূর্বক তার মাথার চুল কেটে ন্যাড়া করে দিয়েছে। বাড়ীতে কাউকে খবরও পাঠাতে দেয়নি। এমনকি তার পরিবারের সাথেও দেখা করতে দেয়নি। মাথা ন্যাড়া করে দেওয়ার পর ঘরে আটকে রেখে সাতদিন যাবত মারপিট করেছে। 

গৃহবধূ আসমা খাতুনের পিতা ইসমাইল হোসেন বলেন, স্থানীয় এলাকাবাসী ও সাংবাদিকদের সহযোগিতায় আমার মেয়েকে উদ্ধার করে ধুনট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

গৃহবধুর স্বামী বকুল হোসেন নির্যাতনের বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, স্ত্রী আসমা খাতুনের মাথায় খুসকি হওয়ায় তার চুল কেটে ন্যাড়া করে দেওয়া হয়েছে। তাকে ঘরে আটকে রেখে কোন নির্যাতন করা হয়নি।

বগুড়ার ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খান মোহাম্মদ এরফান বলেন, এবিষয়ে শুনেছি কোন লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিডিপ্রতিদিন/ ই-জাহান

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow