Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২০ এপ্রিল, ২০১৮ ২২:১৮ অনলাইন ভার্সন
টেকনাফে পৃথক অভিযানে ৪ লাখ ১৮ হাজার ইয়াবা উদ্ধার
টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি:
টেকনাফে পৃথক অভিযানে ৪ লাখ ১৮ হাজার ইয়াবা উদ্ধার

কক্সবাজারের টেকনাফে পৃথক অভিযান চালিয়ে ৪ লাখ ১৮ হাজার ১১৮ পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে বিজিবি ও কোস্টগার্ড। কোস্টগার্ড সহকারি গোয়েন্দা পরিচালক আব্দুল্লাহ আল মারুফ জানান, শুক্রবার দুপুরে টেকনাফ  সিজি স্টেশান কোস্টগার্ড সদস্যরা ছেড়াদিয়ার দক্ষিণ সাগরে একটি সন্দেহজনক ফিশিং বোটকে থামার সংকেত দেয়। এসময় বোটটি অমান্য করে পালিয়ে গেলে কোস্টগার্ড সেটিকে ধাওয়া করে। 

একপর্যায়ে বোটে থাকা লোকগুলো সাগরে ফিশিং ট্রলারটি রেখে পালিয়ে যায়। এসময় সাগরে ট্রলারটিকে তল্লাশি করে ৩টি বস্তা উদ্ধার করা হয়। পরে তা খুলে গণনা করে ৪ লাখ পিস ইয়াবা পাওয়া যায়। যার আনুমানিক মূল্য ২০ কোটি টাকা। বোটটি তলা ফেটে যাওয়ায় সাগরে ডুুুবি যায়। উদ্ধারকৃত ইয়াবা টেকনাফ থানায় হস্তান্তর করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছে কোস্টগার্ড। 

এছাড়া একইদিন সকালে টেকনাফ সাবরাং ইউপিস্থ ফতেহআলী পাড়া থেকে মালিক বিহীন ১৮ হাজার ১১৮ পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে বিজিবি। এ সময় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। সকালে সাবরাং খুরেরমুখ অস্থায়ী চেকপোষ্টের দায়িত্বপূর্ণ এলাকায় ২ বর্ডার গার্ড বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্ণেল মোঃ আছাদুদ-জামান চৌধুরী জানান, ২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধীনস্থ সাবরাং খুরেরমুখ অস্থায়ী চেকপোষ্টের হাবিলদার মো. বিল্লাল হোসেনের নেতৃত্বে বিশেষ টহল দল ফতেহআলীপাড়া এলাকায় ইয়াবা ক্রয়-বিক্রয় হতে পারে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সেখানে বিজিবি অবস্থান নেয়। পরে কোন লোকজনকে না দেখে আশে পাশে জঙ্গলে তল্লাশী করে পরিত্যক্ত অবস্থায় ১টি বস্তা দেখতে পায়। পরে ওই বস্তা থেকে ৫৪ লাখ ৩৫ হাজার ৪০০ টাকা মূল্যের ১৮ হাজার ১১৮ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।  উদ্ধারকৃত ইয়াবা ট্যাবলেটগুলো ব্যাটালিয়ন সদরে জমা রাখা হয়েছে। যা পরবর্তীতে উর্দ্ধতন কর্মকর্তা, মাদকদ্রব্য অধিদপ্তরের প্রতিনিধি, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও মিডিয়া কর্মীদের উপস্থিতিতে ধ্বংস করা হবে।


বিডি প্রতিদিন/২০ এপ্রিল ২০১৮/হিমেল

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow