Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২১ এপ্রিল, ২০১৮ ১২:১৮ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ২১ এপ্রিল, ২০১৮ ১৩:২৭
পাবনায় বিদ্যালয়ের দেয়াল ধসে ৪ শিক্ষার্থী আহত
পাবনা প্রতিনিধি:
পাবনায় বিদ্যালয়ের দেয়াল ধসে ৪ শিক্ষার্থী আহত

পাবনায় পৌর এলাকার শিবরামপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সীমানা প্রচীর ধসে ৫ শিশু শিক্ষার্থী গুরুতর আহত হয়েছে। তাদের মধ্যে ৪ জনকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হলে ২ জনের অবস্থার অবনতি হলে তাদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আজ সকাল ১০টার দিকে পাবনা পৌর সদরের শিবরামপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওবায়দুল হক বলেন, বিদ্যালয়ের সংস্কার কাজের জন্য স্কুলের দেয়াল ঘেঁষে বালুসহ নির্মাণ সামগ্রী রেখেছিলেন ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান। সকালে স্কুলের দেয়ালের পাশে খেলাধূলা করছিলো শিক্ষার্থী। এ সময় হঠাৎ দেয়াল ধসে পড়ে শিক্ষার্থীদের ওপর। এতে গুরুতর আহত হয় শিবরামপুর এলাকার আইয়ুব আলীর মেয়ে আফরিন ও আফসানা, আমিন উদ্দিনের ছেলে আল আমিন ও মানিক রতনের ছেলে ইসমাইল নামের ৪ শিক্ষার্থী। প্রথমে তাদের উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে আফরিন ও ইসমাইলের অবস্থার অবনতি হলে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। আফরিন ও আফসানা দ্বিতীয় শ্রেণিতে এবং আল আমিন ও ইসমাইল শিশু শ্রেণীর ছাত্র।

খবর পেয়ে হাসপাতালে গিয়ে আহত শিক্ষার্থীদের দেখতে ও চিকিৎসার খোঁজ খবর নেন জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন ও জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুস সালাম ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গৌতম কুমার বিশ্বাস।

এদিকে, ঘটনার পর বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা স্কুলের সামনে ঢাকা-পাবনা মহাসড়ক অবরোধের চেষ্টা করলে কিছু সময় যান চলাচল ব্যাহত হয়। পরে পুলিশ গিয়ে তাদের সরিয়ে দিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এদিকে একাধিক এলাকাবাসী অভিযোগ করে বলেন, ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানকে অনেক বার বলা হয়েছে দিনের বেলা বিশেষ করে স্কুল চলাকালিন অবস্থায় কাজ না করার জন্য। আমরা এলাকাবাসী স্কুলের প্রধান শিক্ষক এনামুল হক সিদ্দিকী ও কর্তৃপক্ষকেও বিষটি অবহিত করলেও তারা আমাদের কারো কথা কর্নপাত করেননি। আমরা এই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান এবং প্রধান শিক্ষকের অপসারণ দাবি করছি।

এ বিষয়ে প্রধান শিক্ষক এনামুল হক সিদ্দিকী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের অবহেলার কারণেই এমনটি হয়েছে। বিষয়টি আমরা উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেছি। 

জেলা প্রশাসক মো. জসিম উদ্দিন বলেন, বিষয়টি খোঁজ খবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


বিডি প্রতিদিন/২১ এপ্রিল ২০১৮/হিমেল

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow