Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২১ এপ্রিল, ২০১৮ ১৫:৪২ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ২১ এপ্রিল, ২০১৮ ১৫:৫৯
আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে পটুয়াখালীতে ইউপি সদস্য নিহত
পটুয়াখালী প্রতিনিধি:
আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে পটুয়াখালীতে ইউপি সদস্য নিহত

আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে পটুয়াখালীর বাউফলে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে এক ইউপি সদস্য নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও অন্তত ৮ জন।

আজ দুপুর দেড়টার দিকে উপজেলার নওমালা ইউনিয়নের নগরের হাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত ইউপি সদস্যের নাম মো. রফিক হাওলাদার (৪৫)। তিনি নওমালা ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের সাধারণ সদস্য। এ ঘটনায় ৭ জনকে আটক করেছে বাউফল থানা পুলিশ। আহতদেরকে বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। ময়না তদন্তের জন্য নিহতের লাশ পটুয়াখালী মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নগরের হাটে ব্যবসায়ীদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

পটুয়াখালী সহকারী পুলিশ সুপার মো. ফারুক হোসেন জানান, নওমালা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. শাহজাদা হাওলাদারের লোকজন কয়েক দিন পূর্বে নগরের হাটে প্রতিপক্ষ কামাল বিশ্বাসের সমর্থক একটি ছেলেকে মারধর করে। ঘটনার পর চেয়ারম্যান শাহাজাদা ও তার সহযোগীরা এলাকার বাইরে ছিলেন। শনিবার দুপুরে চেয়ারম্যান শাহাজাদা তার দলবল নিয়ে এলাকায় যাচ্ছিলেন। সম্প্রতি ওই মারামারির ঘটনায় প্রতিপক্ষ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেন বিশ্বাসের সমর্থকরা পিছন থেকে শাহাজাদা ও তার দলবলকে ধাওয়া করলে উভয়ের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। এতে ইটের আঘাতে গুরুত্বর আহত হন শাহাজাদা সমর্থক ৬ নং ওয়ার্ডের সদস্য রফিক হাওলাদার। তাকে আহতাবস্থায় উদ্ধার করে বাউফল উপজেলা হাসপাতালে নেয়ার পথে রফিক মারা যান বলে জানান পুলিশ কর্মকর্তা। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের অনন্ত ৭/৮ জন আহত হয়েছে বলেও জানান এএসপি ফারুক হোসেন। ঘটনার পর ৭জনকে আটক করেছে পুলিশ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, বিগত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকে কেন্দ্র করে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেন বিশ্বাসের সাথে বিএনপি নেতা ও বর্তমান চেয়ারম্যান শাহাজাদা হাওলাদারের কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছে।

বিডিপ্রতিদিন/ ই-জাহান

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow