Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২২ এপ্রিল, ২০১৮ ০৯:৩৬ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ২২ এপ্রিল, ২০১৮ ১০:২৬
ঝিরির পানিতে ভেসে আসা কঙ্কালটির পরিচয় মেলেনি
লামা (বান্দরবান) প্রতিনিধি:
ঝিরির পানিতে ভেসে আসা কঙ্কালটির পরিচয় মেলেনি

লামার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নে ঝিরির পানিতে ভেসে আসা কঙ্কালটির ৫ দিনেও পরিচয় মেলেনি। ইউনিয়নের ঈদগার ছড়ার সুরমাঝিরি থেকে গত বুধবার (১৮ এপ্রিল) একটি অজ্ঞাত লাশের কঙ্কাল উদ্ধার করে পুলিশ। এই বিষয়ে স্থানীয় সাবেক মেম্বার এম আবুল হোসেন (৪৫) লামা থানায় অপমৃত্যুর মামলা (০৩/১৮, তারিখ- ১৯ এপ্রিল ২০১৮ইং) দায়ের করে। 

এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ইউনিয়নের গয়ালমারা এলাকার সর্দার নুরুল আজিম আজু (৫০) বুধবার সকালে লোকমুখে শুনতে পারে দুর্গম ঈদগার ছড়ার সুরমাঝিরি নামক স্থানে ঝিরির পানিতে একটি গলিত লাশের কঙ্কাল দেখা গেছে। বিষয়টি সে ইউপি চেয়ারম্যান জাকের হোসেন মজুমদার ও সাবেক মেম্বার আবুল হোসেনকে অবহিত করেন। চেয়ারম্যান ও আবুল হোসেন বিষয়টি লামা থানার পুলিশকে অবহিত করে। 

লামা থানার পুলিশের উপ পরিদর্শক মো. কবির হোসেন বলেন, আমরা খবর পেয়ে সঙ্গীয় পুলিশ সদস্য নিয়ে বুধবার রাতে কঙ্কালটি উদ্ধার করি। এসময় কঙ্কালের পরনে থাকা একটি ফুল প্যান্ট ও পাশে পাথরে আটকানো অবস্থায় ১টি সাদা ও খয়েরি রং জ্বলে যাওয়া ফুল শার্ট পাওয়া যায়। মনে করা হয় লাশের কঙ্কালটি পুরুষ মানুষের। ২/৩ মাস আগে কোনভাবে মৃত্যু হয়ে ঝিরির পানিতে ভেসে এসে পাথরের সাথে আটকে যায়। স্থানীয়ভাবে ওই কঙ্কালের পরিচয় জানা যায়নি। বৃহস্পতিবার কঙ্কালটি ময়নাতদন্তের জন্য বান্দরবান মর্গে প্রেরণ করা হয়।   

কঙ্কাল উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করে থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ আনোয়ার হোসেন বলেন, ঘটনাস্থলের ৮/১০ কিলোমিটারের মধ্যে কোন জনবসতি নেই। স্থানটি লামা-আলীকদম ও নাইক্ষ্যংছড়ি তিন উপজেলার সীমান্তবর্তী অতি দুর্গম। গভীর জঙ্গল হওয়ায় এতদিন লাশের খবর পাওয়া যায়নি। এছাড়া ২-৩ মাসের মধ্যে উপজেলায় কোন ব্যক্তি নিখোঁজ বা হারিয়েছে এমন রেকর্ড আমাদের কাছে নেই। 


বিডি প্রতিদিন/২২ এপ্রিল ২০১৮/হিমেল

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow