Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২৪ এপ্রিল, ২০১৮ ২১:৫২ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ২৪ এপ্রিল, ২০১৮ ২২:১৬
নেতার ভয়ে বিদ্যালয়ে তালা
শিক্ষক পেটানো সেই রাসেল যুবলীগের কেউ নয়
মোরেলগঞ্জ প্রতিনিধি:
শিক্ষক পেটানো সেই রাসেল যুবলীগের কেউ নয়

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে শিক্ষকদেরকে মারপিটকারি রাসেল মোল্লা যুবলীগের কেউ নয় বলে জানিয়ে দিয়েছেন উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক মোজাম্মেল হক মোজাম। তিনি বলেছেন রাসেল মোল্লা চিংড়াখালী ইউনিয় যুবলীগের কেউ নন। তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য যুবলীগের পক্ষ থেকেও প্রসাশনকে অনুরোধ করা হয়েছে। মঙ্গলবার বাংলাদেশ প্রতিদিনে ‘নেতার ভয়ে স্কুলে তালা দিয়ে পালাল শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা!’ এই শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হলে যুবলীগ আহ্বায়ক মোজাম বাংলাদেশ প্রতিদিনকে এ তথ্য জানান। তিনি আরো বলেন, ওই ইউনিয়নের কমিটি অনুমোদন করা হয়নি। 

এদিকে রাসেল মোল্লা নিজেকে ৪নং ওয়ার্ড় যুবলীগের সাবেক সভাপতি, বর্তমান সভাপতি ও যুবলীগ ইউনিয়ন কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক বলে দাবি করেছেন। তিনি বলেন, চিংড়াখালীতে আমার উপর ভর করেই যুবলীগ চলে। এখন যদি কোন কারণে কেউ বলে আমি যুবলীগের কেউ নই সেটা হয়তো কাগজপত্রের কথা, বাস্তবের নয়। 

এদিকে ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক মো. হাসান হাওলাদার এ বিষয়ে কিছু বলতে রাজি হননি।

উল্লেখ্য, রবিবার বিকেলে চিংড়াখালী ইউনিয়নের সিংজোড় চন্ডিপুর বহুমুখী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে সহকারি প্রধান শিক্ষক মো. শাহজাহান সিরাজ, সহকারি শিক্ষক অনির্বান রায় ও দপ্তরী সাখাওয়াত হোসেনকে যুবলীগ নেতা রাসেল মোল্লা ডেকে নিয়ে মারপিট করার অভিযোগে সোমবার সকল শিক্ষক ও ছাত্র-ছাত্রীরা বিদ্যালয় চত্বরে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেন। মানববন্ধন চলাকালে ওই যুবলীগ নেতা রাসেল তার সহযোগীদের নিয়ে আবারো চড়াও হন শিক্ষকদের ওপর। এসময় প্রধান শিক্ষক, ছাত্রছাত্রী ও অন্যান্য শিক্ষকরা বিদ্যালয়ে তালা দিয়ে যে যার মত করে পালিয়ে যান। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জামান, থানার ওসি(তদন্ত) মো. আলমগীর কবির ঘটনাস্থলে গিয়ে বেলা ১টার দিকে শিক্ষকদেরকে বিদ্যালয়ে ফিরিয়ে আনেন। 

থানার ওসি (তদন্ত) মো. আলমগীর কবির এ প্রসঙ্গে বলেন, বিদ্যালয় এলাকায় আজও পুলিশ মোতায়েন ছিলো। আগামীকাল বুধবারও থাকবে। পরিবেশ শান্ত আছে। পূর্বের ঘটনায় থানায় কোন মামলা দায়ের হয়নি। 


বিডি প্রতিদিন/২৪ এপ্রিল ২০১৮/হিমেল

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow