Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২৫ এপ্রিল, ২০১৮ ১৭:৪৯ অনলাইন ভার্সন
স্বামীর পিটুনিতে গৃহবধূ হাসপাতলে
দিনাজপুর প্রতিনিধি
স্বামীর পিটুনিতে গৃহবধূ হাসপাতলে

তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দিনাজপুরের বীরগঞ্জে গৃহবধূ শম্পা রাণী রায়কে (২৫) হাত-পা বেঁধে পিটিয়ে আহত করেছে স্বামী পুস্প রায় (৩০)। পরে খবর পেয়ে শম্পা রাণীর মা-বাবা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে।

জানা গেছে, বীরগঞ্জের মরিচা ইউপির মহাদেবপুর গ্রামের জগেশ রায়ের ছেলে পুস্প রায়ের সাথে একই এলাকার সুন্দরী হাটগাছ গ্রামের গোকুল রায়ের মেয়ে শম্পা রানী রায়ের বিয়ে হয়। তাদের এক মেয়ে এবং এক ছেলে রয়েছে। 

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন শম্পা রানী রায় সাংবাদিকদের জানান, ৮ বছর আগে পারিবারিকভাবে তাদের বিয়ে হয়। স্বামীর ডেকোরশনের ব্যবসা আছে। তিন মাসে আগে উপজেলার সুজালপুর ইউনিয়নের চাকাই যদুর মোড় এলাকায় গোপনে একটি বিয়ে করে পুস্প রায়। এরপর থেকে নেমে আসে অশান্তি। শুরু হয় মারপিট-নির্যাতন। গত সোমবার সন্ধ্যায় সামান্য কথায় ক্ষিপ্ত হয়ে হাত-পা বেঁধে আমাকে বেধড়ক লাটি পেটা করে। পরে একটি ঘরে আটকে রাখে। সংবাদ পেয়ে আমার বাবা-মা গত মঙ্গলবার সকালে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে।

ঘটনার পর থেকে এখন পর্যন্ত পুস্প রায়ের পক্ষ থেকে কোনো প্রকার যোগাযোগ করা হয়নি বলে তিনি জানান।

বীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার মো. মাহামুদুল হাসান পলাশ জানান, আহত শম্পা রানী রায়ের শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাতের চিহৃ রয়েছে। তবে তিনি বর্তমানে আশঙ্কামুক্ত।

বীরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) মো. মহছেউল গণি বলেন, এ ধরণের ঘটনা আমাদের জানা নেই। অভিযোগ পেলে অবশ্যই এ ব্যাপারে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিডি প্রতিদিন/২৫ এপ্রিল ২০১৮/এনায়েত করিম

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow