Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২৫ এপ্রিল, ২০১৮ ১৭:৫৩ অনলাইন ভার্সন
কলাপাড়ায় বাড়ছে আত্মহত্যা চেষ্টার প্রবণতা
কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি:
কলাপাড়ায় বাড়ছে আত্মহত্যা চেষ্টার প্রবণতা

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় আশংকাজনক হারে বাড়ছে বিষপানে আত্মহত্যা চেষ্টার প্রবণতা। পারিবারিক বিষয় কিংবা অভিমানে কীটনাশক পান করে আত্নহননের পথ বেছে নিচ্ছে অনেকে। আর এমন প্রবণতায় উদ্বিগ্ন হয়ে পরছে অনেক পরিবার। 

গত ১ এপ্রিল থেকে ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত অন্তত ২০ জন নারী-পুরুষ আত্নহননের পথ বেছে নিয়েছে। দ্রুততম সময়ে তাদেরকে হাসপাতালে আনার ফলে প্রাণহানির কোন ঘটনা ঘটেনি। তবে সহজলভ্য হিসাবে হাতের নাগালে কীটনাশক পাওয়ায় তা পানে আত্নহননের পথ বেছে নিচ্ছেন এমনটাই অভিজ্ঞরা মনে করছেন। 

হাসপাতাল সূত্রে প্রাপ্ত তথ্যে জানা গেছে, গৃহবধূ লাইজু (১৭), সালমা (২০), রাবেয়া বেগম (৩৫), ফাতেমা আক্তার (১৭), সাথী (২০), মিম (২০) লামিয়া (১৪), ঝুমুর (১৭) আবু রাইহান (১২) আফজাল (৪০), জামাল (২০), ইউনুচ (২৩), হোসেন (২৫) সহ অন্তত: ২০ জন কীটনাশক পানে আত্নহননের প্রচেষ্টা চালায়। এদের মধ্যে কেউ স্বামী-স্ত্রী বিরোধ, পারিবারিক অশান্তি, হতাশা, লেখাপড়ার অতিরিক্ত চাপসহ প্রেমে বাঁধা দেওয়ার কারণে কীটনাশক পানে আত্নহত্যার চেষ্টা করে। আবার কেউ কেউ বয়সের কারণে পরিবারের বোঝা হয়ে অনাদর আর অবহেলায় হতাশায় নিমজ্জিত হয়ে কীটনাশক পানে আত্নহত্যার পথ বেছে নিয়েছে বলে জানা গেছে।

কলাপাড়া প্রেসক্লাবের সভাপতি মেজবাহ উদ্দিন মাননু বলেন,পরিবারের মাঝে আবেগ, অনুভূতি, সহমর্মিতা কমে যাওয়া, দ্বায়িত্ববোধ উদাসীনতা কিংবা ক্রমশ দূরে সরে যাওয়ায় কারণে এ প্রবণতা বৃদ্ধি পেয়েছে।

কলাপাড়া হাসপাতালের চিকিৎসক ডাক্তার জুনায়েত খান লেলীন জানান, প্রতিদিনই বিষপানে আক্রন্ত রোগী দুই এক জন করে হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে। দ্রুততম সময়ে তাদেরকে হাসপাতালে আনার ফলে প্রাণহানির কোন ঘটনা ঘটেনি। আমরাও সাধ্যমত চিকিৎসা দিচ্ছি বলে তিনি জানিয়েছেন। 

বিডি প্রতিদিন/এ মজুমদার

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow