Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২১ মে, ২০১৮ ১৪:০৭ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ২১ মে, ২০১৮ ১৮:০৮
অনুমতি ছাড়াই লন্ডনে পিএইচডি করছেন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তার
নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল:
অনুমতি ছাড়াই লন্ডনে পিএইচডি করছেন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তার

বরিশালের বানারীপাড়া উপজেলার বাইশারী ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রের চিকিৎসক মো. নাঈম হাসান গত দুই বছর ধরে নিখোঁজ রয়েছেন। ছুটি কিংবা কর্তৃপক্ষের অনুমতি না নিয়ে লন্ডনে পিএইচডি ডিগ্রি করায় তার অনুপস্থিতির কারণে বাইশারী ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে চিকিৎসা সেবা বন্ধ রয়েছে। এতে চরম বিড়ম্বনায় পড়েছেন রোগীরা।

বাইশারী এলাকার একাধিক ব্যক্তি জানান, মো. নাঈম হাসান দুই বছর আগে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যোগদান করেন। মো. নাঈম হাসানের পৈত্রিক বাড়ি বানারীপাড়ায় হওয়া তিনি বাইশারী ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে প্রেষণে বদলী হন। ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে সংযুক্ত হয়েও ডা. নাঈম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দায়িত্ব পালন করছিলেন।

বানারীপাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একাধিক কর্মকর্তা জানান, ডা. নাঈম হাসান ওই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত থাকা অবস্থায় লন্ডন প্রবাসী এক নারী চিকিৎসককে বিয়ে করেন।  বিয়ের কিছু দিন পর তিনি হঠাৎ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসা বন্ধ করে দেন। তাদের ধারণা ডা. নাঈম হাসান তার স্ত্রী লন্ডন প্রবাসী ডাক্তারের সাথেই রয়েছেন। কোন ধরনের ছুটি ছাড়াই দুই বছর ধরে কর্মক্ষেত্রে অনুপস্থিত রয়েছেন ডাক্তার নাঈম হাসান।

ডাক্তার নাঈম হাসানের বাবা আব্দুস সালাম জানান, তার ছেলে পুত্রবধূর সাথে থেকেই লন্ডনে পিএইচডি করছেন। সরকারি অনুমতি পেতে বিলম্ব হতে পারে আশংকায় নাঈম ব্যক্তিগত ভাবে লন্ডনে পিএইচডি করছেন বলে তিনি জানান। 

বানারীপাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্মকর্তা ডা. মারিয়া হাসান বলেন, ডাক্তার নাঈম হাসান কোন ধরনের ছুটি না নিয়েই গত দুই বছরেরও বেশি সময় ধরে অনুপস্থিত রয়েছেন। প্রতি মাসে জেলা ও ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের প্রতিটি মিটিংয়ে এই বিষয়টি উপস্থাপন করা হচ্ছে। 

জেলা সিভিল সার্জন ডা. মো. মনোয়ার হোসেন জানান, সম্প্রতি ডাক্তার নাঈম হাসানের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা দায়েরের জন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় চিঠি পাঠানো হয়েছে। 

বিডি প্রতিদিন/মজুমদার

 

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow