Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২৬ মে, ২০১৮ ২০:৩৫ অনলাইন ভার্সন
ঢাকা-টাঙ্গাইল বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়ক যানজটমুক্ত রাখতে বিশেষ সিদ্ধান্ত
টাঙ্গাইল প্রতিনিধি
ঢাকা-টাঙ্গাইল বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়ক যানজটমুক্ত রাখতে বিশেষ সিদ্ধান্ত

ঈদকে সামনে রেখে ঢাকা- বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়ক যানজটমুক্ত রাখতে বিশেষ ট্রফিক ব্যবস্থাপনাসহ বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। শনিবার টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসকের সভাকক্ষে সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থার সাথে সংশ্লিষ্ট সকল সংস্থার সমন্বয়ে অনুষ্ঠিত এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

সভায় ট্রাফিক বিভাগের পক্ষ থেকে জানানো হয়, চাললেন প্রকল্পের সড়কের কাজ চন্দ্রা থেকে এলেঙ্গা পর্যন্ত এগিয়ে গেছে। কিন্তু বেশ কয়েকটি সেতুর কাজ এখনো শেষ হয়নি। এছাড়া মির্জাপুরের ধেরুয়াতে রেলক্রসিংয়ের উপর উড়াল সেতুর নির্মান কাজ চলার কারনে সেখানে সড়ক দুই লেন রয়েছে। অধিকাংশ এলাকায় চাল লেনের সড়ক নির্মান কাজ সম্পন্ন হওয়ায় যানবাহন দ্রুত চলতে পারবে। কিন্তু সেতু ও ধেরুয়ার রেলক্রসিংয়ের সামনে দু’লেন সড়কে এসে জটের সৃষ্টি হবে। এছাড়াও কয়েকটি পয়েন্টে যানজটের সৃষ্টি হতে পারে।সভায় নির্মানাধীন সেতুগুলোর কাজ দ্রুত সম্পন্ন করে ঈদের আগেই চলাচলের জন্য খুলে দেওয়ার ব্যবস্থা নিতে বলা হয়। 

চার লেন প্রকল্প ব্যবস্থাপক জিকরুল হাসান জানান, প্রকল্পের আওতায় ২৬টি সেতুর মধ্যে ২৪টি সেতু ঈদের আগেই চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হবে। সভায় মির্জাপুরের ধেরুয়া রেলক্রসিং, কালিহাতীর পুংলী সেতু, টাঙ্গাইল শহর বাইপাসের রাবনা মোড়সহ যে সমস্ত স্থানে যানজটের আশংকা রয়েছে সেখানে বিশেষ ট্রাফিক ব্যবস্থা নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এছাড়া দুর্ঘটনা কবলিত এবং রাস্তায় বিকল হওয়া যানবাহন দ্রুত সরিয়ে নেয়ার জন্য কয়েকটি স্থানে রেকার প্রস্তুত রাখা হবে বলে পুলিশ সুপার সভায় জানান। 

ঈদের তিনদিন আগ থেকে মহাসড়কে যানচলাচলের অবস্থা পর্যবেক্ষন করার জন্য তিনটি কমিটি গঠন করা হয়। তিন কমিটির তিন প্রধান করা হয়েছে জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও টাঙ্গাইল পৌরসভার মেয়রকে।

টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক খান মোঃ নুরুল আমিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায়, চাল লেন প্রকল্পের ব্যবস্থাপক-১ জিকরুল হাসান, ব্যবস্থাপক-২ রিজাউল আলম, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোশারফ হোসেন খান, বিআরটিএ’র সহকারি পরিচালক মোঃ আবু নাইম, টাঙ্গাইল পৌরসভার মেয়ার জামিলুর রহমান মিরন, প্রেসক্লাব সভাপতি জাফর আহমেদ, বাস মিনিবাস মালিক সমিতির সভাপতি খন্দকার ইকবাল হোসেন, মহাসচিব গোলাম কিবরিয়া বড় মনির, ট্রাফিক পরিদর্শক রফিকুল ইসলাম প্রমুখ সভায় বক্তব্য রাখেন।

 

বিডি প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ সিফাত তাফসীর

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow