Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২১ জুন, ২০১৮ ১৯:১৮

ঠাকুরগাঁওয়ে স্কুলশিক্ষকের মৃতদেহ উদ্ধার

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি:

ঠাকুরগাঁওয়ে স্কুলশিক্ষকের মৃতদেহ উদ্ধার

ঠাকুরগাঁওয়ে স্কুল শিক্ষক ইসমাইল হোসেনের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তিনি সদর উপজেলার বেগুনবাড়ি ইউনিয়নের গেদাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। 

বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টায় তার বাড়ি সৈয়দপুর সরকার পাড়া নিজ বাড়ি থেকে মৃতদেহ পুলিশ উদ্ধার করে। 

পরিবারের অভিযোগ জমিজমার লোভে নিকটস্বজনরাই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে।
ওই স্কুল শিক্ষকের স্ত্রী বেবী বেগম ও তার মেয়ে জুই আক্তার অভিযোগ করে বলেন-সকালে বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে প্রতিপক্ষরা ঘরে ঢুকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর ফাঁসিতে ঝুলিয়ে রাখে। দীর্ঘদিন থেকে সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ ইসমাইল হোসেনে বড় ভাই আজাহার সাথে। এরই জের ধরে আজাহারের ছেলেরা এ হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে বলে দাবি ওই পরিবারের। 

তবে আজাহারের ছেলে রাশেদ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, সম্পত্তির লোভেই স্ত্রী ও মেয়েরা মিলে এ ঘটনা ঘটিয়েছে। সকালে ওই বাড়িতে গিয়ে দেখি সবাই নিশ্চুপ। কান্নাকাটি নেই। বেলা বাড়ার সাথে সাথে এলাকার লোকজন আসলে তারপর কান্না করতে থাকে। যা এলাকার মানুষ দেখেছে। 

এলাকাবাসীরা বলছেন, ওই বাড়ির গেট সব সময় লাগানো থাকে। এ ঘটনাটি রহস্যজনক বলে মনে হচ্ছে সবার। তাই রহস্য উম্মোচনে প্রশাসনের উপর জোর দাবি এলাকাবাসীর। তবে কেউ যেন হয়রানীর স্বীকার না হন এজন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা তাদের। 

ইসমাইল হোসেনের মেয়ে। এর মধ্যে দুজনের বিয়ে হয়েছে। ছোট মেয়ে জুই ও তার স্ত্রী ওই বাড়িতে ছিল।

ঠাকুরগাঁও থানার ওসি আব্দুল লতিফ মিঞা বলেন, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঠাকুরগাঁও মর্গে পাঠানো হয়েছে। তদন্তের পর খোলাসা হবে মৃত্যুর রহস্য। তদন্ত অব্যাহত রয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান তিনি। 

বিডি-প্রতিদিন/ ই-জাহান


আপনার মন্তব্য