Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২২ জুন, ২০১৮ ২০:৩৭ অনলাইন ভার্সন
সাপাহার সীমান্তে বিজিবি-বিএসএফ পতাকা বৈঠকে ভারতীয় যুবতীকে হস্তান্তর
নওগাঁ প্রতিনিধি :
সাপাহার সীমান্তে বিজিবি-বিএসএফ পতাকা বৈঠকে ভারতীয় যুবতীকে হস্তান্তর
bd-pratidin

নওগাাঁর সাপাহার উপজেলার বামনপাড়া সীমান্ত এলাকা দিয়ে ভুল করে বাংলাদেশ অভ্যন্তরে চলে আসা ভারতীয় যুবতী সুমনাকে (১৫) দীর্ঘ প্রচেষ্ঠায় বিজিবি উদ্ধার পূর্বক বিএসএফ এর সাথে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে পরিবারের নিকট হস্তান্তর করেছে।  

নওগাঁস্থ ১৬ বিজিবির আদাতল কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার সামছুল হক জানান, গত ১৭জুন সকালে ভারতের দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার তপন থানার গোপালনগর গ্রামের বাসিন্দা শরিফুল ইসলামের কন্যা সুমনা ছত্রহাটি বিএসএফ এর নিকট তার পরিচয়পত্র জমা দিয়ে কাঁটাতারের বাইরে জমিতে কাজ করতে আসে। সন্ধ্যায় অন্যরা ফিরে গেলে ও সুমনা পথ ভুলে বামনপাড়া সীমান্ত এলাকা দিয়ে বাংলাদেশ অভ্যন্তরে ঢুকে পড়ে নিরুদ্দেশ হয়। এ বিষয়ে ছত্রহাটি বিএসএফ কর্তৃপক্ষ তাদের হারিয়ে যাওয়া ওই যুবতীকে উদ্ধার করে ফেরত দেওয়ার জন্য বিজিবি ১৬ ব্যাটালিয়নের আদাতলা কোম্পানী সদরে পত্র প্রেরণ করেন। এরই প্রেক্ষিতে বিজিবি সদস্যরা ওই যুবতীকে উদ্ধারে ব্যাপক তৎপরতা চালায়। গত ২১জুন রাত ৯টায় আদাতলা বিজিবির কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার সামছুল আলমের নেতৃত্বে বিজিবির একটি বিশেষ টহল দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সদরের জিরোপয়েন্ট এ অবস্থিত নিউ মার্কেট এর সামনে থেকে ওই যুবতীকে উদ্ধার করেন।
এ বিষয়ে আজ শুক্রবার বিকেল ৩টায় বামনপাড়া সীমান্তের ২৪৬/৭ এস পিলার এলাকায় বিজিবি ও বিএসএফ এর কোম্পানি কমান্ডার পর্যায়ে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিজিবি ১৬ ব্যাটালিয়নের আদাতলা কেম্পানি কমান্ডার সুবেদার সামছুল আলম ও ভারতের ১২২ বিএসএফ কোম্পানির কাতরইল ক্যাম্পের কমান্ডার এসি বিএ ডোগরার নেতৃত্ব প্রদান করেন। ওই দিন বিকেল ৩টা থেকে সাড়ে ৩টা পর্যন্ত প্রায় ৩০ মিনিট ধরে দুই দেশের সীমান্তরক্ষি বাহিনীর মধ্যে পতাকা বৈঠক চলে। বৈঠক শেষে আদাতলা বিজিবি কর্তৃপক্ষ কাতরইল বিএসএফ এর উপস্থিতিতে পথহারা ওই ভারতীয় যুবতী (সুমনা) কে তার বাবা শরিফুল ইসলাম ও মা সুফিয়া বেগমের নিকট হস্তান্তর করা হয়।

বিডি-প্রতিদিন/ সালাহ উদ্দীন

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow