Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৫ আগস্ট, ২০১৮ ২০:৩৬ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৫ আগস্ট, ২০১৮ ২০:৪০
'লুটেপুটে খাওয়ার জন্য বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছে ঘাতকরা'
কুমিল্লা প্রতিনিধি:
'লুটেপুটে খাওয়ার জন্য বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছে ঘাতকরা'
bd-pratidin

পরিকল্পনামন্ত্রী ও কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, স্বাধীনতার বিরোধী শক্তি ও ঘাতক মোস্তাক-ডালিমরা স্বাধীন রাষ্ট্রকে লুটেপুটে খাওয়ার জন্য বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছে। কিন্তু সেই অপশক্তি সফল হতে পারেনি। পাকিস্তানি ঘাতক, অত্যাচারী শাসকদের কাছ থেকে বঙ্গবন্ধু একটি স্বাধীন বাংলাদেশ উপহার দিয়েছেন লাখ ভাই-বোনের রক্তের বিনিময়ে। 

আজ কুমিল্লা নগরীর রাম ঘাটলায় আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগের আয়োজিত দোয়া ও আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে পরিকল্পনামন্ত্রী এসব কথা বলেন। 

পরিকল্পনামন্ত্রী আরাে বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করতে তরুণ ও যুব সমাজকে এগিয়ে আসতে হবে। উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির বাংলাদেশ গড়তে বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে হবে। 

শোক সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে রেলপথমন্ত্রী ও কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর হক মুজিব বলেন, স্বাধীনতার অপশক্তি এবং বিরোধী চক্রান্তমহল বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্যদের নির্মমভাবে হত্যা করেছেন।  হত্যাকাণ্ডের পর একটি বর্বর আইন পাশ করা হয়েছিল। ঘাতকরা চেয়েছিল বঙ্গবন্ধু হত্যা করে ইতিহাস থেকে বঙ্গবন্ধুর নাম মুছে দিবে, কিন্তু সেটা ছিল ব্যর্থ প্রয়াস। বর্তমানে যতদিন যাচ্ছে বঙ্গবন্ধুর নাম বাংলার জমিনে আরও উজ্জ্বল হচ্ছে। 

এসময় আরও বক্তব্য রাখেন কুমিল্লা ৬ আসনের এমপি ও কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার। তিনি বলেন, ঘাতকরা ভেবে ছিল জাতীর শ্রেষ্ঠ সন্তান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করে বাংলাদেশকে থমকে দেওয়া যাবে। কিন্তু সেই ঘাতক চক্রান্তকারীদের স্বপ্ন সফল হয়নি। 

দোয়া ও আলোচনা সভায় এসময় উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জসিম উদ্দিন চৌধুরী, আলকাছুর রহমান খোকা, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জোবেদা খাতুন পারুল, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন স্বপন, কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক নূর উর রহমান মাহমুদ তানিম প্রমুখ। এদিকে কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি আঞ্জুম সুলতানা সীমার উদ্যোগে নজরুল এভিনিউতে শোক দিবস পালিত হয়।  

এছাড়া কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মো. আবুল ফজল মীর ও পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলামের নেতৃত্বে শোক র‌্যালির বের করা হয়। র‌্যালি শেষে কুমিল্লা নগরীর নগর উদ্যানে জাতির জনকের ম্যূরালে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন। এছাড়া কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়,কুমিল্লা সিটি করপোরেশন, জেলা পরিষদ, ভিক্টোরিয়া কলেজসহ বিভিন্ন সামাজিক- সাংস্কৃতিক সংগঠন জাতীয় শোক দিবস পালন করেছে। 

বিডি প্রতিদিন/মজুমদার

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow