Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৬ আগস্ট, ২০১৮ ২১:৪১ অনলাইন ভার্সন
জোয়ারের পানিতে বরিশালের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত, জনদুর্ভোগ
নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল:
জোয়ারের পানিতে বরিশালের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত, জনদুর্ভোগ
bd-pratidin

নদ-নদীর পানি অস্বাভাবিকভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় বরিশাল নগরী কিছু এলাকাসহ গোটা জেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। গত ২-৩ দিন ধরে এ অবস্থা বিরাজ করায় দুর্ভোগে পড়েছেন প্লাবিত এলাকার বাসিন্দারা। যদিও পানি উন্নয়ন বোর্ডের দাবি, কীর্তনখোলাসহ জেলার চারপাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া নদ-নদীর পানি বিপদসীমা অতিক্রম করেছে। 

গত কয়েকদিন ধরে দুপুরের পরপরই বিভিন্ন খাল এবং এর সঙ্গে সংযুক্ত ড্রেনের মাধ্যমে জোয়ারের পানি প্রবেশ করছে বরিশাল নগরীতে। বিকেল নাগাদ হাটু পানিতে তলিয়ে যায় নগরীর সাগরদীর দরগাহ্ বাড়ি, আলেকান্দার ব্যাপ্টিস্ট মিশন রোড, খান সড়কের আংশিক মল্লিক বাড়ি, কেডিসি বস্তি এলাকা, চাঁদমারী ও পলাশপুরের নিম্নাঞ্চল, ভাটারখাল, আগরপুর রোড সহ বিভিন্ন এলাকা। নগরীর বর্ধিতাংশ টিয়াখালী, লাকুটিয়া, পলাশপুর, রূপাতলীর বিভিন্ন এলাকাও জোয়ারের পানিতে প্লাবিত হয়েছে। তবে ভাটার সময় পানি নেমে যায় বলে জানিয়েছেন সংশ্লিস্ট এলাকার বাসিন্দারা।  এমন ঘটনায় ভোগান্তিতে পড়েছেন সেখানকার বাসিন্দারা। 

বরিশাল পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) পানি পরিমাপ বিভাগের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো. মাসুম জানান, গত বুধবার নগরী সংলগ্ন কীর্তণখোলাসহ জেলার আশপাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া সবগুলো নদ-নদীর পানি প্রবাহ বিপদসীমা অতিক্রম করে। বুধবার কীর্তনখোলার পানি ছিলো বিপদসীমার চেয়ে ১২ সেন্টিমিটার বেশী। আজ বৃহস্পতিবারও নদ-নদীর পানি একই উচ্চতায় প্রবাহিত হয়েছে। 

পানি উন্নয়ন বোর্ড বরিশালের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী রমজান আলী প্রামাণিক জানান, অমাবশ্যার প্রভাবে গত ৩-৪ দিনে দক্ষিণাঞ্চলের নদ-নদীতে অস্বাভাবিক জোয়ার হচ্ছে। তবে ভাটার সময় পানি নেমে যাওয়ায় তেমন কোন ক্ষয়ক্ষতির আশংকা নেই। 

বিডি প্রতিদিন/মজুমদার

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow