Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৬ আগস্ট, ২০১৮ ২২:৩৩ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৬ আগস্ট, ২০১৮ ২২:৩৫
ফরিদপুরে ভিজিএফের ৩০ বস্তা চালসহ ইউপি সদস্য আটক
ফরিদপুর প্রতিনিধি
ফরিদপুরে ভিজিএফের ৩০ বস্তা চালসহ ইউপি সদস্য আটক
প্রতীকী ছবি

ভিজিএফের ৩০ বস্তা চালসহ ফরিদপুরের সদরপুর উপজেলার আকটেরচর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আয়নাল বেপারীকে আটক করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে সদরপুরের এসিল্যান্ড জোবায়ের রহমান রাসেদ তাকে আটক করেন। পরে ইউপি সদস্য আয়নাল বেপারীকে সদরপুর থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এ ঘটনায় একটি মামলার প্রস্তুতি চলছে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, ঈদুল আযহা উপলক্ষে আকোটেরচর ইউনিয়নের হতদরিদ্রদের মাঝে চাল বিতরণের কথা ছিল বৃহস্পতিবার। সে মোতাবেক ইউনিয়ন পরিষদ থেকে চাল বিতরণ করা হয়। 

স্থানীয়রা অভিযোগ করেন, ২০ কেজি করে চাল দেওয়ার কথা থাকলেও বেশির মানুষকে ১২/১৫ কেজি করে চাল বিতরণ করা হয়। এছাড়া তালিকায় অনেকের নাম থাকলেও চাল শেষ হয়ে গেছে এমন কথা বলে তাদের ফিরিয়ে দেয়া হয়।

স্থানীয়দের অভিযোগ, চেয়ারম্যানের যোগসাজসে ইউপি সদস্য ৩০ বস্তা চাল সরিয়ে অন্যত্র বিক্রি করার পাঁয়তারা করেছেন। 

এদিকে, ৬নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আয়নাল বেপারী ইউনিয়ন পরিষদের পাশের একটি বাড়িতে চাল সরিয়ে রেখেছেন। 

খবর পেয়ে বিকেলে উপজেলা এসিল্যান্ড জোবায়ের রহমান রাসেদ ঘটনাস্থলে গিয়ে ৫০ কেজির ৩০ বস্তা ভিজিএফের চাল দেখতে পান। পরে তিনি ৩০ বস্তা চাল উদ্ধার করেন এবং ইউপি সদস্য আয়নাল বেপারীকে আটক করে নিয়ে আসেন। পরে তাকে সদরপুর থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়।

এ বিষয়ে এসিল্যান্ড জোবাযের রহমান রাসেদ জানান, স্থানীয়দের অভিযোগের ভিক্তিতে চালসহ ইউপি সদস্যকে আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ বিষয়ে তার বিরুদ্ধে একটি মামলা হবে।

অন্যদিকে আকোটের চর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান চৌধুরী মনিরুল হক মুরাদ জানান, ইউপি সদস্য আয়নাল বেপারীর কোন দোষ নেই। তিনি চাল আত্মসাৎ করেননি। যারা চাল পেয়েছেন তাদের অনেকেই তার কাছে চাল বিক্রি করেছেন। 

আয়নাল বেপারী তাদের কাছ থেকে চাল কিনেছেন। সেলাই করা বস্তাভর্তি চাল উদ্ধারের বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন করা হলে চেয়ারম্যান কোন উত্তর দিতে পারেননি।

বিডি প্রতিদিন/১৬ আগস্ট ২০১৮/আরাফাত

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow