Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৭ আগস্ট, ২০১৮ ২১:০৬ অনলাইন ভার্সন
'নৌপথকে ঝুঁকিমুক্ত করতে সরকার সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে'
মনিরুল ইসলাম মনি, সাতক্ষীরা
'নৌপথকে ঝুঁকিমুক্ত করতে সরকার সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে'

সরকারের কঠোর অবস্থানের ফলে চার বছরে নৌপথে কোন দুর্ঘটনা ঘটেনি বলে জানান নৌপরিবহনমন্ত্রী শাহাজাহান খান এমপি। নৌপথকে ঝুঁকিমুক্ত করতে নৌ মন্ত্রণালয় সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বলে জানান তিনি।
শুক্রবার বিকেলে সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দর উপদেষ্টা কমিটির সভায় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।
মন্ত্রী আরো জানান, পদ্মাসেতু নির্মাণের পর ভোমরা হবে দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম স্থলবন্দর। ইতিমধ্যে এই বন্দরে আরও ৩৫টি পণ্য আমদানি-রপ্তানীর অনুমতি দেয়া হয়েছে। এ নিয়ে মোট ৭৪ টি পন্য আমদানি-রপ্তানীর অনুমতি দেয়া হয়েছে এ বন্দরে। তবে সড়ক নিরাপত্তা আইন বিষয়ে কোন মন্তব্য করেননি মন্ত্রী।
স্থল বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান তপন কুমার চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে স্থলবন্দর সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সাবেক স্বাস্থ্য মন্ত্রী ও সাতক্ষীরা তিন আসনের এমপি আ.ফ.ম রুহুল হক, সাতক্ষীরা ২ আসনের এমপি মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি, নৌপরিবহন মন্ত্রাণালয়ের সচিব আব্দুস সামাদ, খুলনা কাস্টমস কমিশনার ওহিদুল আলম, সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইফতেখার হোসেন, পুলিশ সুপার সাজ্জাদুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুনসুর আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম প্রমুখ।

উক্ত সভা থেকে আরো জানানো হয়, ভোমরা স্থল বন্দরে একটি পুলিশ ফাঁড়ি নির্মাণ করা হবে। এছাড়া স্থানীয় কমিউিনিটি ক্লিনিককে ছোট পরিসরে একটি হাসপাতালে পরিণত করা হবে এবং বন্দর এলাকার দুই কিলোমিটার এরিয়া পর্যন্ত আরসিসি রাস্তা তৈরি করা হবে।

বিডি-প্রতিদিন/ সালাহ উদ্দীন

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow