Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৯ আগস্ট, ২০১৮ ১৮:৩৯ অনলাইন ভার্সন
'খুনিদের সঙ্গে সংলাপের প্রশ্নই ওঠে না'
অনলাইন ডেস্ক
'খুনিদের সঙ্গে সংলাপের প্রশ্নই ওঠে না'
ফাইল ছবি

খালেদা জিয়াকে একাধিকবার সংলাপের আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কিন্তু তা তারা প্রত্যাখ্যান করেছিলেন। এখন তারা আবার সংলাপ চায়। খুনিদের সঙ্গে সংলাপের প্রশ্নই ওঠে না।

রবিবার ভোলা সরকারি কলেজের চারটি একাডেমিক ভবন উদ্বোধন শেষে জাতীয় শোক দিবসের সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে
বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে সংবিধান অনুসারে। ২০১৪ সালের নির্বাচনে বিএনপি না এসে যে ভুল করেছে, আবার যদি সে ভুল করে তাহলে সেটি হবে রাজনৈতিক আত্মহত্যার সামিল। তাতে অস্তিত্ব সংকটে পরবে বিএনপি।

মন্ত্রী আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু যদি না জন্মাতেন তাহলে এ দেশ স্বাধীন হতো না। বঙ্গবন্ধু জীবনের চার হাজার ৬৮২ দিন কারাগারে ছিলেন। পাকিস্তানিরা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করতে পারেনি, করেছেন খুনি মোস্তাকরা। যারা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছেন জিয়াউর রহমান তাদের পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে চাকরি দিয়েছিলেন। জিয়ার স্ত্রী খালেদা জিয়া খুনিদের জাতীয় সংসদের সদস্য করেছিলেন। আর স্বাধীনতাবিরোধী নিজামী, মুজাহিদদের গাড়িতে তুলে দিয়েছিলেন জাতীয় পতাকা।
ভোলা সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর পারভিন আক্তারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বাণিজ্যমন্ত্রীর স্ত্রী আনোয়ারা আহমেদ, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মোশারেফ হোসেন, ভাইস চেয়ারম্যান মো. ইউনুছ মিয়া, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম নকিব, সাংগঠনিক সম্পাদক মইনুল হোসেন বিপ্লব বক্তব্য রাখেন।

বিডি-প্রতিদিন/ সালাহ উদ্দীন
 

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow