Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২৩:২৮ অনলাইন ভার্সন
'জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে রাজনৈতিক ফায়দা লুটতে অপপ্রচার'
নরসিংদী প্রতিনিধিঃ
'জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে রাজনৈতিক ফায়দা লুটতে অপপ্রচার'

জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে একটি মহল রাজনৈতিক ফায়দা লুটতে গণমাধ্যমে অপপ্রচার করছে বলে অভিযোগ করেছেন নরসিংদীর শিবপুরের সংসদ সদস্য ও যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সিরাজুল ইসলাম মোল্লা।

মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলা সদরের রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই অভিযোগ করেন। একই সঙ্গে তিনি দলীয় প্রতিদ্বন্দ্বিদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, রাজনীতিতে প্রতিহিংসা নয়, প্রতিযোগীতা চাই।
সাংসদ সিরাজুল ইসলাম মোল্লা বলেন, উপজেলা সমন্বয় কমিটির সভাপতি হলেন উপজেলা চেয়ারম্যান। আর আমি উপদেষ্টা। উপদেষ্টা হিসাবে এই মিটিংয়ে উপস্থিত হওয়া না হওয়া এটা কোন বিষয় না। আর সেই দিন ইউপি চেয়ারম্যানরা সভায়ই আসেনি, আমি আসার পর তারা চলে গেছে বিষয়টি এমন নয়। এর সঙ্গে আমার আসা না আসার কোন সম্পর্ক নেই।
তিনি বলেন, ইউপি চেয়ারম্যানদের উন্নয়ন বরাদ্দ দেয় উপজেলা পরিষদ। উপজেলা চেয়ারম্যান আর ইউএনও ইউনিয়নের চেয়ারম্যানদের মধ্যে উন্নয়ন বরাদ্দ ভাগ করে দেয়। এখানে এমপি হিসাবে আমার কোন হাত নাই। আমার জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে একটি মহল রাজনৈতিক ফায়দা লুটতে গণমাধ্যমে এই অপপ্রচার চালাচ্ছে।
সাংসদ সিরাজুল ইসলাম মোল্লা আরও বলেন, আওয়ামী লীগ বৃহৎ রাজনৈতিক দল, এখানে একাধিক প্রার্থী থাকবে এটাই স্বাভাবিক। আমাদের মধ্যে আমি কোন প্রতিহিংসা চাই না, প্রতিযোগিতা চাই। প্রতিযোগিতার মাধ্যমে আমরা সামনের দিকে এগিয়ে যেতে চাই। মনোনয়ন দিবেন জননেত্রী শেখ হাসিনা। তিনি যাকে মনোনয়ন দিবেন আমরা ঐক্যবদ্ধভাবে তার পক্ষে কাজ করবো। সামনে আমাদের নির্বাচন সেই নির্বাচনে আমরা নিজেদের মধ্যে কোনো কাঁদা ছোড়াছোড়ি করতে চাইনা। অন্যদেরকেও আমরা সেই সুযোগটা দিতে চাই না। আমরা চাই ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে আগামী নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে এই আসনে নৌকার বিজয় উপহার দিবো।
এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জেলা যুবলীগের সভাপতি বিজয় গোস্বামী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি নাসির উদ্দিন সরকার, এ কে এম নাসির আহমেদ হিরন, মোরশেদ আহমেদ, বাঘাব ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মতিউর রহমান, বাঘাব ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান এ কে বশির আহমেদ বাবলু, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মাহবুবুর আলম মোল্লা তাজুল, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি হাকিবুর আলম বুলু ও উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি হাফিজ আহমেদ সরকার প্রমুখ।

বিডি প্রতিদিন/ সালাহ উদ্দীন

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow