Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৭:২২ অনলাইন ভার্সন
রাজশাহীতে ৬৯ শতাংশ দুর্ঘটনায় জড়িত অটোরিকশা-ট্রাক-মোটরবাইক
নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী:
রাজশাহীতে ৬৯ শতাংশ দুর্ঘটনায় জড়িত অটোরিকশা-ট্রাক-মোটরবাইক

রাজশাহী নগরীতে যেসব সড়ক দুর্ঘটনা ঘটছে তার ৬৯ শতাংশ ঘটনার সাথে মোটরবাইক, ট্রাক ও অটোরিকশা-এই তিনটি বাহন জড়িত। নগরীর ভিতরে বাস ও অন্যান্য যানবাহনে তুলনামূলক কম দুর্ঘটনা ঘটছে। এমনটিই জানাচ্ছে রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (রুয়েট) ‘রোড এক্সিডেন্ট এন্ড সেফটি স্টাডি অফ রাজশাহী সিটি ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক গবেষণা।

সম্প্রতি প্রকাশিত বিশ্ববিদ্যালয়টির সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষক নুর ই ফেরদৌস মণিকা মাতিন ও মাসুদ রানার যৌথ গবেষণা বলছে, রাজশাহীর ৬টি রাস্তার মোট ১৬৭ কিলোমিটার দূরত্বে ২০১৭ সালের জানুয়ারি থেকে জুলাইয়ে দুর্ঘটনার তথ্য নিয়ে এই গবেষণাটি করা হয়েছে।

তথ্য বলছে, মোট ৯৯ টি সড়ক দুর্ঘটনা ঘটেছে। সবচেয়ে বেশি দুর্ঘটনা ঘটেছে নাটোর রাজশাহী মহাসড়কে। আর সর্বনিম্ন দুর্ঘটনা ঘটেছে রাজশাহী-চাঁপাই মহাসড়কের পুরাতন অংশে। যার ২৮ শতাংশ অর্থাৎ ২৭ টি ঘটনার সাথে জড়িত ছিল মটর সাইকেল, ২৪ শতাংশ তথা ২৩ টি ঘটনার সাথে জড়িত ট্রাক এবং ১৯ শতাংশ তথা ১৮ টি ঘটনার সাথে জড়িত ছিল অটোরিক্সা। এই হিসাবে ঘটনার ৬৯ শতাংশের সাথে জড়িত অটোরিক্সা, ট্রাক ও মোটর বাইক এই তিন বাহন। অন্যদিকে বাস দুর্ঘটনা ১৬ %, ভুটভুটি ৫ %, বাই সাইকেল ৫%, ভ্যান ৫ % এবং অন্যান্য বাহন ২ % দুর্ঘটনার সাথে জড়িত ছিল। 

গবেষণা জানাচ্ছে, অধিকাংশ দুর্ঘটনার কারণ ছিল মুখোমুখি সংঘর্ষ, পথচারীর অসচেতনতা, চালকের উদাসীনতা ও ভাঙ্গা রাস্তা। যেখানে মোট ঘটনার সর্বোচ্চ ৪৫টি মুখোমুখি সংঘর্ষ, আর রাস্তা পারাপারের পথচারীদের অসচেতনতায় ৩১ টি দুর্ঘটনা ঘটেছে।

গবেষকরা নগরীর বিপজ্জনক রাস্তাগুলো প্রশস্ত করা এবং রোড ডিভাইডার দেওয়া, ভাঙ্গা পেভমেন্ট লেয়ারে ওভার লোডেড যানবাহন চলতে না দেওয়া, পর্যাপ্ত পরিমাণে স্পিড ব্রেকার, ট্রাফিক সিগন্যালস, জেব্রা ক্রসিং নির্মাণ ও পথচারীদের সচেতন হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন।

বিডি প্রতিদিন/মজুমদার

আপনার মন্তব্য

up-arrow