Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১১ অক্টোবর, ২০১৮ ১৬:৪১ অনলাইন ভার্সন
দুটি বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রের উদ্বোধন করলেন বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী
শরীয়তপুর প্রতিনিধি

দুটি বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রের উদ্বোধন করলেন বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

শরীয়তপুর জেলার গোসাইরহাট ৩৩/১১ কেভি, ১০/১৪ এমভিএ ও ভেদরগঞ্জ ৩৩/১১ কেভি, ১০/১৪ এমভিএ বিদ্যুৎ উপকেন্দ্র উদ্বোধন করেন বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু এমপি। 

বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে গোসাইরহাট উপজেলা ইদিলপুর ইউনিয়নের ধীপুর এলাকায় এ উপকেন্দ্র উদ্বোধন করেন তিনি।  

উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী নজরুল হামিদ বিপু বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে সারা বাংলাদেশে শতভাগ বিদ্যুতের জন্য আমরা এগুচ্ছি। আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে শতভাগ বিদ্যুতায়নে পৌছব আমরা। পশ্চিম দক্ষিণাঞ্চল ও পূর্ব দক্ষিণাঞ্চলে যতদ্রুত সম্ভব প্রতিটি এলাকায় বিদ্যুৎ পৌঁছে দিতে চেষ্টা করছি। যেহেতু পদ্মা সেতু হচ্ছে দক্ষিণাঞ্চলে অনেক ইন্ডাস্ট্রিজ হবে। তাই এসব এলাকায় বিদ্যুতের ডিমান্ড অনেক বেড়ে যাবে। আগামী দশ বছরে ১০ হাজার মোঁওয়ার্ড বিদ্যুতের প্রয়োজন হবে। 

পরে দুপুর পৌনে ১২টার দিকে গোসাইরহাট বাজার সংলগ্ন হেলিপ্যাড মাঠ প্রাঙ্গনে এক সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন প্রতিমন্ত্রী। সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন শরীয়তপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য নাহিম রাজ্জাক। শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহেরের সভাপতিত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন শরীয়তপুর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আল মামুন শিকদার, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে, গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সৈয়দ নাসির উদ্দিন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আরএম সেলিম শাহনেওয়াজ, উপজেলা সভাপতি শাহজাহান শিকদার, গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান দেওয়ান মো. শাহজাহান, জেলা পরিষদের সদস্য শাকিল চৌধুরী, উপজেলা ছাত্রলীগের মোস্তফা কামাল ফরাজী, সাধারণ সম্পাদক নয়ন দেওয়ানসহ উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যানরা উপস্থিত ছিলেন।

জানা যায়, বিদ্যুৎ উপকেন্দ্র দুটি নির্মাণ ব্যয় ১৬ কোটি, লাইন নির্মাণ ব্যয় ১৮২ কোটি টাকা। দুটি বিদ্যুৎ উপকেন্দ্র গড়তে মোট ব্যয় হয়েছে ১৯৮ কোটি টাকা। এর থেকে ৫১ হাজার ৭১৫টি পরিবার বিদ্যুত সুবিধা পাবে।

বিডি-প্রতিদিন/১১ অক্টোবর, ২০১৮/মাহবুব

 

আপনার মন্তব্য

up-arrow