Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ২৩ অক্টোবর, ২০১৮ ১৮:২৩ অনলাইন ভার্সন
ড. কামাল বিএনপির খোঁয়াড়ে ঢুকেছেন : তথ্যমন্ত্রী
ময়মনসিংহ প্রতিনিধি:
ড. কামাল বিএনপির খোঁয়াড়ে ঢুকেছেন : তথ্যমন্ত্রী
ফাইল ছবি

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, ‘সব জেনে শুনেই ড. কামাল হোসেন বিএনপি’র খোঁয়াড়ে ঢুকেছেন। বিএনপি’র যেসব নেতারা সাজাপ্রাপ্ত, কারাগারে আটক, বিভিন্ন মামলায় যারা জড়িয়ে আছে তাদেরকে প্রতিষ্ঠিত করতেই ঐক্যফ্রন্টের সৃষ্টি। এ ঐক্য নির্বাচন করার জন্য নয়। ড. কামাল হোসেন একজন জ্ঞানপাপী।’

মঙ্গলবার দুপুরে ময়মনসিংহ সার্কিট হাউজ মিলনায়তনে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দেবার আগে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তথ্যমন্ত্রী ও জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু। এসময় উপস্থিত ছিলেন, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি ও জাসদের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আনোয়ার হোসেন, ময়মনসিংহ জেলা জাসদের সভাপতি অ্যাড. গিয়াস উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. সাদিক হোসেন, মহানগর জাসদের সভাপতি সৈয়দ শফিকুল ইসলাম মিন্টু, জেলা জাসদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. নজরুল ইসলাম মিন্টুসহ প্রমুখ। 

সংসদ বাতিলের কোনো সাংবিধানিক বিধান এই মুহূর্তে নেই জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, নির্বাচন হবে। এই সংসদের মেয়াদ যেদিন শেষ হবে এর পরদিন নির্বাচিত সাংসদরা শপথ নিবেন। ফলে পরবর্তী সংসদ চালু হয়ে যাবে। তাই সরকারের পদত্যাগের প্রশ্নই উঠেনা। 

তথ্যমন্ত্রী আরো বলেন, তারেক রহমান ও জামায়াতের সাথে কোনো উঠা-বসা করেননি বলে বলেছেন ড. কামাল হোসেন। তিনি দুধের শিশু না। জলে নামবে সাঁতার কাটবে কিন্তু চুল ভিজাবেনা তা হয়না। বিএনপি’র খোঁয়াড়ে ঢুকে খালেদা-তারেকের সাথে এক থালায় ভাত খাবেন না এটা অসম্ভব ঘটনা। সাজাপ্রাপ্ত খালেদা-তারেক এবং জঙ্গিদের  পুনর্বাসন করতেই এই ঐক্যফ্রন্টের সৃষ্টি।  

ডিজিটাল আইন নিয়ে সাংবাদিকের এক প্রশ্নের জবাবে হাসানুল হক ইনু বলেন, সংবাদকর্মীদের সুরক্ষা করতেই এই আইন করা হয়েছে। এছাড়াও নারী, শিশু, রাষ্ট্র এবং ব্যক্তিগত জীবনকে নিরাপত্তা দেবার জন্যই এই আইন।  

পরে মন্ত্রী ফুলবাড়িয়ার আছিমে ১৪ দল থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী ও ময়মনসিংহ মহানগর জাসদের সভাপতি সৈয়দ শফিকুল ইসলাম মিন্টুর নির্বাচনী জনসভায় যোগ দেন। 
 

বিডি প্রতিদিন/২৩ অক্টোবর ২০১৮/হিমেল

আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর
up-arrow