Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১৭ জানুয়ারি, ২০১৯ ১৯:২৩ অনলাইন ভার্সন
আপডেট : ১৭ জানুয়ারি, ২০১৯ ১৯:৩০
ঝিনাইদহে গরুর গাড়ির দৌড় প্রতিযোগিতায় মানুষের ঢল
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি
ঝিনাইদহে গরুর গাড়ির দৌড় প্রতিযোগিতায় মানুষের ঢল

প্রতি বছরের ন্যায় এবারো জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে ঝিনাইদহে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ঐতিহ্যবাহী গরুর গাড়ির দৌড় প্রতিযোগিতা। বিলুপ্তপ্রায় এই দৌড় প্রতিযোগিতা দেখতে দূর-দূরান্ত থেকে হাজির হন হাজারো মানুষ। ঝিনাইদহ, যশোর, চুয়াডাঙ্গা ও কুষ্টিয়া সহ অন্যান্য এলাকা থেকে বাছাই করা মোট ২০টি গরুর গাড়ি এই প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে শুরু হয়ে এই খেলা চলে বিকাল পর্যন্ত। খেলা শেষে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। এছাড়া অংশগ্রহণের জন্য সবাইকে নগদ টাকা ও সান্ত্বনা পুরস্কার দেওয়া হয়েছে। 

সকাল থেকেই এ আয়োজনকে ঘিরে উৎসবের শহরে রূপ নেয় পুরো গান্না ইউনিয়ন। প্রতিযোগিতায় বাড়তি আকর্ষণ ছিল আনন্দ মেলা। এর মধ্যে ছিল নাগর দোলাসহ বিভিন্ন প্রকারের স্টল। এদিকে, দারুণ এ আয়োজন দেখে মুগ্ধ জেলার ক্রীড়াপ্রেমী দর্শকরা।

জানা গেছে, হারিয়ে যাওয়া ঐতিহ্যকে ধরে রাখতে এবং নতুন প্রজন্মকে জানান দিতে বৃহস্পতিবার গান্না ইউনিয়ন চেয়ারম্যান নাসির মালিতার উদ্যোগে বেতাই গ্রামের মাঠে আয়োজন করা হয় গরুর গাড়ির দৌড় প্রতিযোগিতা। কয়েক হাজার নারী-পুরুষ ও শিশু মাঠে উপস্থিত থেকে উপভোগ করেন এই খেলা। 

দৌড় প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকার করেন বেতাই গ্রামের ডালিম কুমার, ২য় স্থান অধিকার করেন পাশ্ববর্তী দুর্গাপুর গ্রামের খাকতার মল্লিক। সে সময় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার তুলে দেন ঝিনাইদহ জেলা পুলিশ সুপার মো. হাসানুজ্জামান। 

আগত দর্শকরা জানান, গ্রামীণ এ খেলা দিন বিলুপ্তি হয়ে যাচ্ছে। অনেকদিন পর এই খেলা দেখে মুগ্ধ হয়েছেন দর্শকরা। প্রতি বছর এরকম খেলা আয়োজনের দাবি উপস্থিত জনতা। উল্লেখ্য গত ৬ বছর ধরে নিয়মিত আয়োজন করা হচ্ছে এই গরুর দৌড় প্রতিযোগিতা। আয়োজকদের পক্ষ থেকেও প্রতি বছর এমন আয়োজনের ব্যাপারে প্রত্যয় ব্যক্ত করা হয়।

অনুষ্ঠানে গান্না ইউনিয়ন চেয়ারম্যান নাসির মালিথার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ঝিনাইদহ জেলা পুলিশ সুপার মো. হাসানুজ্জামান। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ঝিনাইদহ সদর পুলিশ সার্কেল কনক কান্তি দাশ, সদর থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম হিরণ, ঝিনাইদহ জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক খালেদা খানম, আওয়ামী লীগ নেতা খন্দকার ফারুকুজ্জামান ফরিদ। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন গান্না ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মো. তোফাজ্জেল বিশ্বাস।


বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন

আপনার মন্তব্য

up-arrow