Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৮:২২ অনলাইন ভার্সন
'শিগগিরই রাঙামাটি ক্যান্টনমেন্ট কলেজ নির্মাণ কাজ শুরু হবে'
ফাতেমা জান্নাত মুমু, রাঙামাটি:
'শিগগিরই রাঙামাটি ক্যান্টনমেন্ট কলেজ নির্মাণ কাজ শুরু হবে'

শিগগিরই রাঙামাটি ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ নির্মাণ কাজ শুরু করা হবে বলে জানিয়েছেন রাঙামাটি রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সৈয়দ রিয়াজ মেহেমুদ। তিনি বলেন, তিন পার্বত্য জেলার মধ্যে প্রথম রাঙামাটিতে ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছিল। কিন্তু বিভিন্ন জটিলতার কারণে বাধাগ্রস্ত ছিল। দীর্ঘদিন প্রতিক্ষারপর করেছের জমি পাওয়া গেছে। এখন কাজও দ্রুত শুরু করা যাবে। এ রাঙামাটি ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ সুফল ভোগ করবে এ অঞ্চলে শিক্ষার্থীরাই। তাদের জন্য আমাদের এ প্রয়াস। সেনাবাহিনী পার্বত্যাঞ্চলের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড করে যাচ্ছে। একই সাথে শিক্ষা ক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা রাখছে সেনাবাহিনী। রাঙামাটিতে একটি রাঙামাটি ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের দাবি দীর্ঘ দিনে। এ কলেজ প্রতিষ্ঠিত হলে এ অঞ্চলের শিক্ষার মান আরও উন্নত হবে। 

 
আজ সোমবার সকালে রাঙামাটি জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে রাঙামাটি ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের জমি হস্তান্তর অনুষ্ঠানে রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সৈয়দ রিয়াজ মেহেমুদ এসব কথা বলেন।

এ সময় রাঙামাটি জেলা প্রশাসক এ কে এম মামুনুর রশিদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) এস এম নজরুল ইসলাম, রাঙামাটি বিএফডিসি কমান্ডার মো. আসাদুজ্জামান খান, রাঙামাটি রিজিয়নের জেনারেল স্টাফ অফিসার (জিটুআই) সৈয়দ তানভীর সালেহ উপস্থিত ছিলেন। 

অনুষ্ঠানে রাঙামাটি জেলা প্রশাসক এ কে এম মামুনুর রশিদ বলেন, রাঙামাটি ক্যান্ট পাবলিক স্কুল স্থাপিত হলে এ অঞ্চলের শিক্ষার মান এগিয়ে যাবে। পাহাড়ে ক্যান্টেনমেন স্কুল এন্ড কলেজ স্থাপনের মাধ্যমে সেনাবাহিনী পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীদের উচ্চশিক্ষার সুযোগ সৃষ্টি করে দিয়েছে। রাঙামাটি শহরের টিভি সেন্টার এলাকায় ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের জন্য সাড়ে ১৩ একর সরকারি খাস ও ব্যক্তি মালিকানাধীন জায়গা রেকর্ডভুক্ত করে দেয়া হয়েছে। আশা করি খুব দ্রুত এ কলেজ স্থাপনের কাজ শুরু করা যাবে। কলেজ স্থাপন হলে রাঙামাটি জেলার শিক্ষার গুণগত মান আরও সমৃদ্ধ হবে। 

বিডি প্রতিদিন/এ মজুমদার

আপনার মন্তব্য

up-arrow