Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
প্রকাশ : ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২১:৪৭
আপডেট : ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২১:৫২

নওগাঁয় দুর্ঘটনায় নিহত তিন, বাসে আগুন

নওগাঁ প্রতিনিধি

নওগাঁয় দুর্ঘটনায় নিহত তিন, বাসে আগুন

নওগাঁর মান্দায় বিআরটিসি বাসের চাপায় তিন জন নিহত হয়েছেন। দুর্ঘটনার পর বিক্ষুব্ধ জনতা বিআরটিসি বাসে অগ্নিসংযোগ করে পুড়িয়ে দিয়েছে। সোমবার দুপুরে নওগাঁ-রাজশাহী মহাসড়কের দেলুয়াবাড়ি গরুহাটি মোড় সংলগ্ন এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।  

দুর্ঘটনায় নিহতরা হলেন, মোটরসাইকেল চালক সেলিম হোসেন (৩৫), আরোহী শফিকুল ইসলাম (৪০) এবং মোসলেম উদ্দিন (২৫) নিহত হয়েছেন।
 
নিহত সেলিম হোসেন মান্দা উপজেলার কুসুম্বা বারুইপাড়া গ্রামের আবেদ আলীর ছেলে, শফিকুল ইসলাম উপজেলার বারিল্যা গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে এবং নিহত মোসলেম উদ্দিন রামনগর গ্রামের মৃত শুকুর আলীর ছেলে। 

এ ঘটনায় স্থানীয়রা বিআরটিসি বাসের চালক কার্তিক চন্দ্র ঘোষকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। আটককৃত কার্তিক চন্দ্র রাজশাহীর বোয়ালিয়া উপজেলার কুমারপাড়া এলাকার নারায়ন চন্দ্র ঘোষের ছেলে।

জানা গেছে, নিহতরা মোটরসাইকেল করে মান্দার দেলুয়াবাড়ি গরুহাটি মোড় হয়ে মহাসড়কের উঠছিল। এমন সময় নওগাঁ থেকে রাজশাহীগামী বিআরটিসির একটি বাস (কুমিল্লা ব ১১-০০১৬) তাদেরকে চাপা দেয়। এতে বাসের চাকার সঙ্গে মোটরসাইকেল আটকে গিয়ে ঘটনাস্থলে সেলিম হোসেন নিহত হন।

এসময় গুরুতর আহত দুইজনকে উদ্ধার করে প্রথমে মান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। পরে তাদের অবস্থার অবনিত হলে আশঙ্কাজনক অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকাল ৫টায় তারাও মারা যায়। 

মান্দা থানার ওসি মোজাফফর হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, বিআরটিসির চালক কার্তিক চন্দ্রকে আটক করে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে। 


বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য