Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : শুক্রবার, ২৮ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৮ ২৩:৪১
শাওমি আর বিড়াল
জাফর রাজীব
শাওমি আর বিড়াল

শাওমির ঘুম ভাঙল বিড়ালের ডাকে।

মা-বাবা দু’জনেই চাকরি করেন। শাওমি বাসায় থাকে কাজের মেয়ে রেহানার কাছে। বছর দশেক বয়স রেহানার। শাওমির চারের মতো। বাড়ির কর্তা আর কর্তী বেরিয়ে গেলে ব্যস্ত হাতে কাজগুলি সারে রেহানা। তারপর শাওমিকে নিয়ে ঘুমিয়ে পড়ে। ঘুম কাতুরে মেয়ে রেহানা। খাওয়ারও খবর থাকে না ঘুমের জন্য। শাওমির ঘুম না এলেও জোর করে ঘুম পাড়ায়। আজ ঘুমোতে চাইছিল না শাওমি। জোর করে ঘুম পাড়িয়েছে। বিড়ালের মিঁউ মিঁউ ডাকে ঘুম ভেঙে যায় তার। উঠে বসে। খানিক চোখ কচলিয়ে চেয়ে দেখে তার সামনেই বিড়াল। বসে আছে তার দিকে চেয়ে। শাওমি জানতে চাইল, কীরে কী চাস? আজ একেবারে আমার সামনে?

বিড়ালটা পাশের বাসার লাভলুর। শাওমিদের বাসায় তেমন একটা আসে না। কদাচিৎ কখনও আসে। এলেও বেশিক্ষণ থাকে না। শাওমিকে দেখে দৌড়ে পালায়। তার ইচ্ছে হয় বিড়ালটাকে আদর করতে।

বিড়াল জবাব দিল, মিঁউ, মিঁউ। কথা বলার কোনো মানুষ পাচ্ছিলাম না। তাই চলে এলাম।

তাহলে আমার সঙ্গেই কথা বল।

দেখছিলাম এই মেয়েটা তোমাকে জোর করে ঘুম পাড়াচ্ছে। প্রায়ই এই কাজটা করে। আমার খুব মায়া হয় তোমার জন্য। ইচ্ছে করে ওকে একটা খামছি দেই।

অভিমানের গলায় জবাব দিল শাওমি, হ্যাঁ, ঘুম না পেলেও আমাকে ঘুম পাড়ায়। আমাকে ধমকও দেয়। আমার খুব খারাপ লাগে।

আজ থেকে ও ঘুমোতে বললে তুমি ঘুমের ভান করে থাকবে। তাহলে ও আর ধমক দিতে পারবে না। পরে আমি এসে তোমার সঙ্গে কথা বলব।

 

ঠিক আছে। তাহলে তুমি আমার বন্ধু হবে? বন্ধুই তো।

কিন্তু তুমি তো লাভলুর বন্ধু।

সে আমার মালিক।

রেহানা ঘুমের মধ্যেই পাশ ফিরে শোয়। বিড়াল ভয় পেয়ে নিচে নেমে যায়। তাকে দেখতে পেলে খবর আছে। তাই সে পালিয়েছে। শাওমি বুঝতে পারে তার ঘুম ভাঙেনি। বিড়ালকে ডাকে সে, উপরে উঠে আসো। ঘুম ভাঙেনি।

বিড়াল উপরে উঠে আসে। বলে, মিঁউ মিঁউ, বাবারে যে ভয় পেয়েছিলাম। তোমার পাশে আমাকে দেখলে লাঠিপেটা করত।

ভয় পাবার কী আছে? আমি তো ছিলাম।

না, ও খুব দস্যি মেয়ে। তুমিই তো বললে তোমাকে ধমক দেয়।

দস্যি হলে কী হবে? আমাকে আদরও করে। এই ঘুমের সময় যতো সমস্যা। ঘুমোতে না পারলে তার মেজাজ নাকি খারাপ হয়ে যায়। মাথা ঠিক থাকে না।

আমাদের বাসায়ও একজন আছে। তার কোনো ঘুম নেই। সারাদিন বকবক করে। আর শুধু এটা ওটা চুরি করে খায়। আমাকে একটুও দেয় না। কাজ ফেলে টিভি দেখে। আমিও তার পাশে বসে টিভি দেখি। কী সুন্দর সিরিয়াল। ভুতু আছে। ওকে আমার খুব ভালো লাগে।তুমিও দেখবে। খুব ভালো লাগবে।

আমি তো রেহানার জন্য টিভিও দেখতে পারি না। খালি ঘুম আর ঘুম। আম্মু বকে তাও তার ঘুম যায় না। রাতে আম্মু যখন টিভি দেখে তখনও সে দেখে না। আম্মু আমাকে বলে রেহানার সঙ্গে খেলতে।

কেনো?

ওই যে আমি এটা ওটা প্রশ্ন করি। তাতে নাকি আম্মুর টিভি দেখতে অসুবিধা হয়।

রেহানার এবার ঘুম ভেঙে যায়। চট করে উঠে বসে সে। বলে তোমার কতার লাইগ্যা ঘুমাইতে পারলাম না। কার লগে কতা কইতাছিলা? কেউরেই তো দেখি না। ভূতের লগে কতা কইলা নাকি? তার কথার জবাব না দিয়ে শাওমি বিড়ালকে খোঁজে। কোথায় বিড়াল? খাটের নিচেও দেখল। সেখানেও নেই। গেল কোথায়? তাহলে কি কোনো বিড়াল ছিল না?

এই পাতার আরো খবর
up-arrow