Bangladesh Pratidin

প্রকাশ : রবিবার, ৩১ মে, ২০১৫ ০০:০০ টা প্রিন্ট ভার্সন আপলোড : ৩১ মে, ২০১৫ ০০:০০
প্রকৃতি
মালাক্কা ঝাঁঝি
মালাক্কা ঝাঁঝি

মালাক্কা ঝাঁঝির আরেক নাম পাতা ঝাঁঝি। বৈজ্ঞানিক নাম Aldrovanda vesiculosa, গোত্র Droseraceae। শিকড়হীন নিমজ্জিত, রসাল ও ভাসমান গুপ্তবীজী উদ্ভিদ। কতগুলো স্বচ্ছ পাতাসহ একটি কাণ্ড থাকে। কাণ্ডের চারদিকে আটটি পাতা স্পোকের মতো সাজানো থাকে। উদ্ভিদটি ১০-৩০ সেন্টি মিটার লম্বা হয়। বসন্তকালে ছোট সাদা ফুল ফোটে। শিকার ধরার ফাঁদ থাকে পানির নিচে। পাতাগুলোই ফাঁদ হিসেবে কাজ করে। পাতা ছয় মিমি লম্বা। এসব ফাঁদে প্ল্যাঙ্কটন জাতীয় আণুবীক্ষণিক উদ্ভিদ ও প্রাণী শিকার করা হয়। এরা পাতার পরিচলন প্রক্রিয়ায় পানিতে দ্রুত চলাচল করতে পারে। ১৯৭৪ সালে প্রথম উদ্ভিদটিকে রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার ধরাশের বিলে পাওয়া যায়। চলনবিল এবং গোপালগঞ্জের কোনো কোনো বিলেও এদের দেখা যেত। বর্তমানে এটি আমাদের দেশে বিলুপ্তপ্রায়। বিজ্ঞানীদের ধারণা, জলাভূমির বসতি ধ্বংসের কারণে পরিবেশ থেকে এটি বিলুপ্তপ্রায়। তাই বিল অঞ্চলে নিবিড় পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে এ ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়া যেতে পারে। বাংলাদেশের Red Data Book (২০০১) এ উদ্ভিদকে বিপন্ন বলে চিহ্নিত করে। IUCN (২০১৩) এর তালিকায় এটি ৪৩টি দেশে পাওয়া যেত। এখন ২২টি দেশ থেকে এটি বিলুপ্ত। এ তালিকায় বাংলাদেশেও এটি বিলুপ্ত বলে ঘোষণা করা হয়েছে।

 

 

এই পাতার আরো খবর
up-arrow