Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : সোমবার, ২০ জুন, ২০১৬ ০০:০০ টা আপডেট : ২০ জুন, ২০১৬ ০০:১১
জঙ্গিবাদবিরোধী ফতোয়া
বিপথগামীরা শান্তির পথে ফিরে আসুক

ইসলামে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড হারাম এমন ফতোয়া দিয়েছেন দেশের এক লাখেরও বেশি আলেম ওলামা। গত শনিবার এক সংবাদ সম্মেলনে ফতোয়া কমিটির আহ্বায়ক আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ বলেছেন, বাংলাদেশ জমিয়াতুল উলামার উদ্যোগে যে ফতোয়া হয়েছে তাতে এক লাখ এক হাজার ৫২৪ জন মুফতি ও আলেম ওলামা স্বাক্ষরদান করেছেন। নারী আলেমরাও এ ফতোয়ায় স্বাক্ষর দিয়েছেন। জঙ্গিবাদ নিয়ে মূল ফতোয়ার সঙ্গে দেওবন্দ, হাটহাজারী, ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার, চরমোনাই, শায়খ জাকারিয়া রিসার্চ  সেন্টার, জমিয়াতুল আসআদ মাদ্রাসা এবং হেফাজত নেতাদের ফতোয়াও সংযুক্ত করা হয়েছে। আল্লামা মাসঊদ আশা প্রকাশ করেছেন আলেম সমাজের দেওয়া ফতোয়ায় সন্ত্রাসী জঙ্গিবাদের মেরুদণ্ড ও মানসিক শক্তি ভেঙে পড়বে। কারণ লক্ষ অস্ত্রের চেয়েও ফতোয়ার শক্তি অনেক ধারালো। মনোচেতনা মানবকর্মের মূল উৎস। সঠিক ফতোয়া সেই মনোচেতনাকে শুদ্ধ করে, আলোড়িত করে, মানবতাবাদী বানায়। মুসলিম সমাজে ফতোয়ার ব্যাপক ও সুদূরপ্রসারী প্রভাব অনস্বীকার্য মন্তব্য করে তিনি বলেন, ধর্মের নামে সন্ত্রাস যারা করছে তারা বেহেশত লাভের প্রেরণায় উদ্বুদ্ধ হয়ে বিভ্রান্তিতে জড়িয়েছে। এটা যে বেহেশতের নয়, জাহান্নামের পথ তা যখন বুঝতে পারবে নিশ্চয় তারা এ পথে পা বাড়াবে না। সুতরাং মানবকল্যাণ ও শান্তির ফতোয়ার এই বারতা সন্ত্রাস পুরোপুরি ঠেকাতে না পারলেও এতে যে তা বহুলাংশে হ্রাস পাবে তাতে সন্দেহ নেই। ফতোয়ার ফলে সন্ত্রাসের মদদদাতারা হতোদ্যম হবে, দ্বিধাহীনভাবে তা বলা যায়। কিন্তু যারা জাগতিক স্বার্থ সামনে রেখে অর্থ, নারী ও ক্ষমতার জন্য হিংস্রতা-বর্বরতাকে অবলম্বন বানিয়েছে, কোরআনের ভাষায় অন্তরে যাদের মরচে পড়েছে তাদের কথা স্বতন্ত্র। দেশের লাখো আলেম ওলামার দেওয়া জঙ্গিবাদ সন্ত্রাসবাদবিরোধী ফতোয়ায় জঙ্গিবাদ বেহেশতের পথ বলে জঙ্গিবাদীরা যে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে তা অপনোদনের চেষ্টা করা হয়েছে। বিপথগামীরা এই ফতোয়ার মাধ্যমে সঠিক পথ খুঁজে পেলে অর্থাৎ সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের পথ ছেড়ে আল্লাহ ও তার রসুল (সা.)-এর নির্দেশিত শান্তি ও কল্যাণের পথে ফিরে এলে তা এক বিরাট অর্জন বলে বিবেচিত হবে।




up-arrow