Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০১৭

প্রকাশ : শনিবার, ২ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২ জুলাই, ২০১৬ ০০:১২
বায়তুল মোকাররমের খুতবা
রমজানের শিক্ষা ও ঈদুল ফিতরের করণীয়
মুফতি মুহাম্মদ মিজানুর রহমান, সিনিয়র পেশ ইমাম, বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদ।

মহান রাব্বুল আলামিনের তরফ থেকে রহমত, বারাকাত ও নাজাতের সওগাত নিয়ে এসেছিল পবিত্র মাহে রমজান, দেখতে দেখতে সেই মহিমান্বিত মাসটি এখন বিদায়ের দ্বারপ্রান্তে। আজকে মাহে রমজানের শেষ জুমা, জুমাতুল বিদা। অশ্রুসিক্ত নয়নে এ মহান মাসকে বিদায় জানাচ্ছে বিশ্বের কোটি কোটি মুসলমান। বছর ঘুরে মাহে রমজান বিশ্ববাসীর কল্যাণে আবার ফিরে আসবে। তবে শঙ্কা কেবল সেখানেই আপনি আমি থাকব কি থাকব না। পাব কি পাব না। তাই অনুধাবন করতে হবে কাজে লাগাতে হবে এই মাসের সিয়াম সাধনার শিক্ষা ও অর্জন। আমরা একটি মাসের সিয়াম সাধনা করেছি পাঞ্জেগানা নামাজ জামাতে আদায় করেছি। তারাবি, কিয়ামূল লাইল, তাহাজ্জুদ, এতেকাফ, কোরআন তেলাওয়াত ইত্যাদিতে সাধ্যানুযায়ী মশগুল রয়েছি। সাহরি, ইফতার, দান সদকা ও জাকাত প্রদানে যত্নবান হয়েছি। জুমাতুল বিদায় শামিল হতে পেরে চিরধন্য ও সৌভাগ্যবান হয়েছি। লাইলাতুল কদর ও ঈদুল ফিতরের নেয়ামত ও বারাকাত লাভের আশায় অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছি। এই রমজানে একনিষ্ঠ সাধনা ও কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে আমাদের ভবিষ্যৎ জীবনকে আরও সুন্দর নির্মল উজ্জ্বল করার শিক্ষা ও দীক্ষা আমরা লাভ করেছি। এই প্রশিক্ষণ সারা বছর সারাটি জীবন আমাদের ধরে রাখতে হবে। কাজে লাগাতে হবে। তাহলেই আমাদের জীবন ইহকাল ও পরকাল স্বার্থক ও সফল হবে। মোট কথা পবিত্র রমজানে আমাদের পাড়ায়-মহল্লায় মসজিদগুলো কানায় কানায় ভর্তি ছিল। ইফতার বিতরণ, রোজাদারদের ইফতারে শামিলকরণ, আদর আপ্যায়নে আমরা যে আন্তরিকতা ও উদারতার পরিচয় দিয়েছিলাম এই অর্জনে এই শিক্ষা রমজান আর ঈদুল ফিতর চলে যাওয়ার সঙ্গে যেন আমাদের থেকে বিদায় হয়ে না যায়। সে বিষয়ে আমাদের সচেতন ও সতর্ক থাকতে হবে। যে ব্যক্তি রমজানের রোজা রাখার পর শাওয়াল মাসে ছয়টি রোজা রাখবে, সে পূর্ণ বছর রোজা রাখার সওয়াব পাবে।   আল্লাহপাক আমাদের শাওয়ালের ছয়টি রোজা পালনের মাধ্যমে সারা বছর রোজা পালনের পুরস্কার লাভে ধন্য হওয়ার তৌফিক দান করুন।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow