Bangladesh Pratidin

ঢাকা, বুধবার, ২৫ জানুয়ারি, ২০১৭

প্রকাশ : বুধবার, ২০ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৯ জুলাই, ২০১৬ ২৩:৪৪
পাঠক কলাম
মওদুদিপন্থি জামায়াতে ইসলামী

বাংলাদেশের অনেক আলেম, ওলামা, মাশায়ে, জামায়াতে ইসলামের প্রবর্তক মাওলানা মওদুদীকে ইসলাম ধর্মের বিকৃতিকারী হিসেবে গণ্য করেন। কারণ জামায়াতে ইসলাম রসুলুল্লাহ (সা.) সাহাবিদের অবমূল্যায়ন করে প্রচার করেন। বেশ কিছু হাদিসের সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। তাই অনেক ইসলামী চিন্তাবিদ, জামায়াতে ইসলামকে ‘পথভ্রষ্ট’ ইসলামী দল হিসেবে আখ্যায়িত করেন। এই মাওলানা মওদুদি পাকিস্তান সরকারের ফাঁসির আসামি হিসেবে জেলবন্দী ছিলেন। আর বাংলাদেশের জামায়াতে ইসলামী ’৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে পাকিস্তান সরকার ও পাক বাহিনীর, ইসলাম ধর্মবিরোধী, মানবতাবিরোধী কর্মকাণ্ডের দোসর বনে গেছে। হয়তো তারা খোয়াব দেখেন, পূর্ব-পাকিস্তানের শাসনকর্তা তারাই হবে। এদেশের রসুলুল্লাহ (সা.) অনুসারী মুসলমানগণ, এদেশের জন্ম নেওয়ার ঋণের দায়স্বরূপ, তাদের তাহজীব, তমুদ্দুন রক্ষার্থে মুক্তিযুদ্ধে ঝঁপিয়ে পড়ল এবং ন্যায়যুদ্ধে জয়ী হয়েছিল। আল্লাহর বিধানও তাই।

ইংরেজিতে একটি প্রবাদ আছে— কিছু লোককে সবসময় বোকা বানিয়ে রাখা যায়, কিন্তু সব লোককে, সবসময়ের জন্য বোকা বানিয়ে রাখা যায় না। পাকিস্তান কি বিশ্ব বিবেককে ‘বোকা’ বানিয়ে রাখতে পারবে? বিশ্ববিবেক কি এতটাই বোকা। তাহলে তো মিথ্যার জয় হবে।   সত্য পরাজিত হবে। তখন তো কেয়ামত এসে যাবে।   আল কোরআনে তো তারই নির্দেশনা আছে।

মো. নাছিরউল্লাহ খান

১৯৩/এফ, ফকিরাপুল, ঢাকা।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow