Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৭

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৭
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২১ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২০ জুলাই, ২০১৬ ২৩:২২
ভেষজ
ডালিমের গুণ
ডালিমের গুণ

ডালিম সুস্বাদু ও পুষ্টিকর এক ফল। যা বছরের প্রায় সব সময়ই পাওয়া যায়।

ডালিমে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফসফরাস যা কমলা, আপেল ও আমের চেয়ে চারগুণ বেশি। আতা ও আঙ্গুরের চেয়ে দ্বিগুণ, কুল ও আনারসের চেয়ে সাতগুণ বেশি। পুষ্টিবিজ্ঞানীদের মতে, প্রতি ১০০ গ্রাম আহার উপযোগী ডালিমে রয়েছে— শর্করা ১৪.৫ গ্রাম, প্রোটিন ১.৬ গ্রাম, ফ্যাট ০.১ গ্রাম, ক্যালসিয়াম ১০ মিলিগ্রাম, ফসফরাস ৭০ মিলিগ্রাম, আয়রন ০.৩ মিলিগ্রাম, ভিটামিন সি ১৪ মিলিগ্রাম, খাদ্যশক্তি ৬৫ কিলো. ক্যালরি।

তবে ডালিমের উল্লিখিত পুষ্টিমান উপাদানের স্থান, জাত ও মানের ওপর হেরফের হতে পারে। ডালিমে রয়েছে উপকারী উপাদান ফাইটোকেমিক্যাল। যা শক্তিশালী অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট হিসেবে কাজ করে। আজকাল বিজ্ঞানীরা ডালিমের পুষ্টিগুণের ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন। বিজ্ঞানীদের মতে, ডালিম রক্তের এলডিএল কোলেস্টেরলের মাত্রা কমায় যা রক্তনালিতে জমা হয়ে হৃদরোগ ও স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়ায়। ডালিমের পুষ্টিগুণের পাশাপাশি ভেষজগুণও রয়েছে। ডালিমের খোসায় রয়েছে অ্যাসর্ট্রিনজেন্ট নামের এক ধরনের ফাইটোকেমিক্যালস। এর খোসা পানিতে সিদ্ধ করে সেই পানি সর্দি, গলার খুশখুশে কাশি, গলা ব্যথায় পান করলে অনেক উপকার পাওয়া যায়। কোষ্টকাঠিন্য, আমাশয় এবং পেটের সমস্যায় ডালিমের রস উপকারী।

ডা. আলমগীর মতি

up-arrow