Bangladesh Pratidin

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৭

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৭
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২৬ জুলাই, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ২৫ জুলাই, ২০১৬ ২৩:১৫
পায়ুপথে বায়ু ঢুকিয়ে শিশু হত্যা
অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক সাজা নিশ্চিত করুন

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে পৈশাচিক কায়দায় পায়ুপথে বাতাস ঢুকিয়ে সাগর বর্মণ নামের এক শিশু শ্রমিককে হত্যা করা হয়েছে। সাগর বর্মণের বাবা নেত্রকোনার খালিয়াজুড়ি উপজেলার রাজিবপুর গ্রামের রতন বর্মণ ও তার ১০ বছর বয়সী শিশুপুত্র রূপগঞ্জের এখলাছ স্পিনিং মিলে কাজ করেন।

রবিবার বেলা দেড়টার দিকে কয়েকজন নারী শ্রমিক রতন বর্মণকে জানান তার ছেলের শরীরে বাতাস ঢোকানো হচ্ছে। এ খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন এবং ছেলেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বেলা সাড়ে ৩টার দিকে ডাক্তাররা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। শিশু সাগরের পরিবারের পক্ষ থেকে চারজনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে এবং এদের একজনকে পুলিশ রবিবার রাতেই গ্রেফতার করেছে। সুতাকলে দিনের বেলায় লোকজনের সামনে একজন শিশুকে পৈশাচিক কায়দায় হত্যা করা হলেও এ ব্যাপারে সবাই মুখে কুলুপ আঁটায় বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার আলামতও ফুটে উঠেছে। স্মর্তব্য, গত বছরের ৩ আগস্ট খুলনায় মোটরসাইকেলের চাকায় হাওয়া দেওয়ার কমপ্রেসার মেশিনের নল পায়ুপথে ঢুকিয়ে রাকিব নামের এক শিশু শ্রমিককে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় জড়িত দুই আসামির ফাঁসির আদেশও দেওয়া হয়েছে বিচারিক আদালতে। সে ঘটনার প্রায় বছর খানিক পর নারায়ণগঞ্জে একই কায়দায় এক শিশু শ্রমিককে হত্যা করা হলো। শিশুশ্রম নিষিদ্ধ হলেও রূপগঞ্জের ওই সুতাকলে সাগর বর্মণ কাজ করছিল দীর্ঘদিন ধরে। আমরা আশা করব, শিশু হত্যায় জড়িতদের আইনের আওতায় আনতে রূপগঞ্জ থানার পুলিশ পেশাগত দক্ষতা, সততা ও আন্তরিকতার পরিচয় দেবে। খুলনার শিশু রাকিব হত্যার বিচারের মতো সাগর বর্মণ হত্যার দ্রুত বিচার এবং অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করা হবে- আমরা এমনটিই দেখতে চাই।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow