Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ১৪ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৩ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:০৪
আহলে বায়েতের প্রতি ভালোবাসা
মাওলানা মুহাম্মদ আশরাফ আলী

আহলে রায়েত বা রসুল পরিবারের প্রতি ভালোবাসাও রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের প্রতি ভালোবাসার অন্তর্ভুক্ত। রসুলের পরিবারের সদস্য তার পুণ্যবতী স্ত্রীগণ, সন্তান-সন্ততি এবং পরবর্তী প্রজন্ম বা বংশধরদের প্রতি ভালোবাসা রসুলকে ভালোবাসার সঙ্গে সম্পর্ক যুক্ত। আল্লাহ ও তার রসুলের প্রতি ভালোবাসার ক্ষেত্রে আহলে বায়েত বা রসুল পরিবার এবং পরবর্তী প্রজন্ম অনন্য অবদান রেখেছে।

রসুলে সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তার প্রিয় নাতনি হজরত হাসানকে (রা.) ভালোবাসতেন নয়নের টুকরা হিসেবে। আল্লাহর রসুল দোয়া করতেন, ‘হে আল্লাহ আমি তাকে ভালোবাসি, অতএব তুমিও তাকে ভালোবাসো এবং যারা তাকে ভালোবাসে তাদেরকে ভালোবাসো।’ (বুখারি) আহলে বায়েতের প্রতি ভালোবাসার দ্বারা যে রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের ভালোবাসা অর্জন করা যায় সে বিষয়টি স্পষ্ট করা হয়েছে তিরমিজি শরিফের হাদিসে। রসুলে খোদা বলেছেন, ‘আল্লাহকে ভালোবাসো তার নেয়ামতের শুকরিয়া হিসেবে, আমাকে ভালোবাসো আল্লাহর ভালোবাসার জন্য এবং আমার পরিবারকে ভালোবাসো আমার ভালোবাসার জন্য।’

রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের প্রতি ভালোবাসা ইমানের পূর্বশর্ত। রসুল প্রেমের পূর্ব শর্ত হলো তিনি যাদের ভালোবাসতেন তাদেরকে ভালোবাসা। রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তার সাহাবাদের ভালোবাসতে বলেছেন। দীন প্রতিষ্ঠায় সাহাবারা ছায়ার মতো আল্লাহর নবীকে অনুসরণ করেছেন। অসহনীয় দুঃখ-কষ্ট এমনকি নির্যাতন সহ্য করেছেন। কোনো অবস্থায় তারা আল্লাহর হাবিবকে ত্যাগ করেননি। কোনো অবস্থায় তারা হুকুমের বরখেলাপ করেননি। রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেন, ‘আমার সাহাবাদের বিষয়ে আল্লাহকে ভয় কর এবং আমার (মৃত্যুর) পর তাদেরকে (সমালোচনার) লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত কর না। যে তাদের ভালোবাসে আমি তাদের ভালোবাসি, যে তাদের ঘৃণা করে আমি তাদের ঘৃণা করি। যে তাদের (সত্তাকে) আঘাত করে তারা আমাকে আঘাত করল, আল্লাহর (সত্তাকে) আঘাত করে এবং যে আল্লাহর (সত্তাকে) আঘাত করে শিগগিরই আল্লাহ তাকে কঠিন আজাবে গ্রেফতার করবেন।’ (তিরমিজি ৬০০৫)

রসুল সাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের প্রতি ভালোবাসার প্রকাশ ঘটাতে হলে একই সঙ্গে সাহাবা এবং আহলে বায়েতের প্রতি ভালোবাসার বহিঃপ্রকাশ ঘটাতে হবে।  তাদের আলোকিত পথকে নিজেদের পথ হিসেবে বেছে নিতে হবে। আল্লাহ আমাদের রসুল প্রেমিক হওয়ার তাওফিক দান করুন।

     লেখক : ইসলামী গবেষক।

এই পাতার আরো খবর
up-arrow