Bangladesh Pratidin

ঢাকা, সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৯ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:১৫
হাসরে মানুষ উত্থিত হবে মৃত্যুকালীন চেহারা নিয়ে
মাওলানা মুহম্মাদ আশরাফ আলী

মানুষ দুনিয়াতে যে অবস্থায় মৃত্যুবরণ করবে, হাসরের দিন ঠিক সে অবস্থায় উত্থিত হবে। যারা পুণ্যবান হিসেবে মৃত্যুবরণ করবে তারা হাসরের দিন সুদর্শনধারী হিসেবে কবর থেকে উঠবে। আর যারা পাপিষ্ঠ অবস্থায় মৃত্যুবরণ করবে হাসরের দিন কবর থেকে ওঠার সময় তাদের চেহারায়ও তা স্পষ্ট হবে।

হজরত ইবনে আব্বাস (রা.) বলেন, একবার হজরত জিবরাঈল (আ.) রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের কাছে এলেন। রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম অত্যন্ত চিন্তিত ছিলেন। হজরত জিবরাঈল (আ.) আরজ করলেন, আল্লাহতায়ালা আপনাকে সালাম বলেছেন এবং ইরশাদ করেছেন যে আপনাকে চিন্তিত ও দুঃখিত দেখছি, এর কারণ কি? রসুল ‘সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম’ ইরশাদ করলেন, হে জিবরাঈল! আমার উম্মতের চিন্তা খুবই বৃদ্ধি পাচ্ছে যে, কিয়ামতের দিন তাদের কী অবস্থা হবে। হজরত জিবরাঈল (আ.) জিজ্ঞেস করলেন, কাফেরদের ব্যাপারে, না মুসলমানদের ব্যাপারে? তিনি বললেন, মুসলমানদের ব্যাপারে চিন্তা হচ্ছে। হজরত জিবরাঈল (আ.) রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে সঙ্গে নিয়ে একটি কবরস্থানে তশরিফ নিয়ে গেলেন। সেখানে বনী সালামা গোত্রের লোকদের দাফন করা হয়েছিল। হজরত জিবরাঈল (আ.) একটি কবরের ওপর তার একটি ডানা মারলেন এবং বললেন আল্লাহর হুকুমে উঠে আস। তত্ক্ষণাৎ কবর থেকে অত্যন্ত সুন্দর সুদর্শন এক ব্যক্তি উঠল এবং সে বলল, লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু মুহাম্মাদুর রসুলুল্লাহ, আল-হামদুলিল্লাহি রাব্বিল আলামীন। হজরত জিবরাঈল (আ.) বললেন, নিজের জায়গায় ফিরে যাও। সে ফিরে গেল। অতঃপর অন্য এক কবরে তার অপর ডানা মারলেন এবং বললেন, আল্লাহর হুকুমে উঠে আস। তত্ক্ষণাৎ কবর থেকে একজন অত্যন্ত কালো কুশ্রী নীল চক্ষুবিশিষ্ট লোক উঠে দাঁড়াল এবং সে বলছিল, হায় আফসোস! হায় লজ্জা! হায় মুসিবত! হজরত জিবরাঈল (আ.) বললেন, নিজের জায়গায় ফিরে যাও। সে ফিরে গেল। অতঃপর জিবরাঈল (আ.) রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের কাছে আরজ করলেন এসব লোক যে অবস্থায় মৃত্যুবরণ করবে (হাশরের দিন) সে অবস্থায়ই উঠবে।

আল্লাহ আমাদের সবাইকে ইমানের সঙ্গে মৃত্যুবরণের তাওফিক দান করুন।

লেখক : ইসলামী গবেষক

এই পাতার আরো খবর
up-arrow